,



জনতার দায়িত্বহীনতায় ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি এড়াতে স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি রয়েছেন কলকাতার আলোচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। কারণ অন্যান্য দেশের মতো এই মরণ ভাইরাস হানা দিয়েছে ভারতেও। ইতোমধ্যে দেশটিতে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে ভারতীয় জনতার উল্লাসে উদ্বিগ্ন শ্রীলেখা। রবিবার বিকালে থালা-বাটি বাজানোর ঘটনায় তিনি রীতিমতো স্তম্ভিত। অমাবস্যাকে কেন্দ্র করে বাড়ির ছাদে উঠে পরিবারের সবাইকে নিয়ে থা-বাটি বাজানোর উৎসবে শামিল হন বলিউড ‍সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চনও।

গোটা ঘটনায় ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘জানি না, ভবিষ্যৎ কী! আগামী দিনের আঁচ কেউ হয়তো এখনও করতে পারছেন না। এটা কোনও উৎসব নয়। দয়া করে বাড়িতে থাকুন। অন্য সব বন্ধ করে দিন। আমার বাড়িতে ৭০ বছর বয়সী বাবা আছেন। আমি ভীষণ চিন্তিত। আমার মেয়ে আছে। ওর সারা জীবন পড়ে আছে।

পাশাপাশি রবিবার যারা আহাম্মকের মতো রাস্তায় নেমে নাচানাচি করেন এবং থালা-বাটি বাজান, তাদের উপর ক্ষোভ ঝাড়েন অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘এই লড়াইটা আমাদের সবাইকে একসঙ্গে লড়তে হবে। কয়েকটা দিন সবাই নিজ ঘরে থাকুন। নিজে ভালো থাকুন, বাকিদেরও ভালো রাখুন। দেশটা মৃত্যুপুরী হয়ে যাক তা আমি চাই না।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর