,



ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা লেবু খাওয়ার আশ্চর্য উপকারিতা

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ সারাবিশ্বেই কমবেশি লেবুর ব্যবহার রয়েছে। কম খরচে আর অনেক বেশি উৎপাদন হয় বলে পাওয়া যায় খুব সহজেই। সব রান্নাঘরেই এটা একটা অপরিহার্য খাবার। লেবু সবসময়ই ফ্রিজে সংরক্ষণ করেন। তবে ডিপ ফ্রিজে জমিয়ে লেবু খাওয়ার উপকারিতা জানেন কি?

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ লেবুতে রয়েছে নানা রোগের উপশম। একটা লেবুর কোনো অংশ বাদ না দিয়ে পুরো লেবুটাকেই ব্যবহার করা যায়। লেবুটিকে ফ্রিজের ডিপে রেখে দিন। তারপর জমে বরফ হয়ে গেলে সেটিকে ছাড়িয়ে কেটে ফেলুন। এরপর এটা আপনি যে কোনো খাবারের ওপর ছড়িয়ে দিন। খাবারের স্বাদ অনেক গুণ বাড়িয়ে তুলবে এটি। তাহলে জেনে নিন ঠাণ্ডা লেবু খাওয়ার উপকারিতা-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় 
লেবুর মত সিটরাস প্রজাতির ফলে লিমনয়েডস থাকে। যা স্তন ক্যান্সারকে প্রতিরোধ করে। একটা গবেষণা দেখাচ্ছে যে লেবুর কোলন, স্তন, প্রোস্টেট, অগ্নাশয়, ফুসফুস সমেত ১২ রকমের ক্যান্সার কোষ ধ্বংস করার ক্ষমতা আছে।

ঠাণ্ডা লেবু
লেবুর রসের থেকে লেবুর খোসায় ৫ থেকে ১০ গুণ বেশি ভিটামিন থাকে। যদি আপনি লেবু ফ্রিজে ঠাণ্ডা বরফ করে তারপর সেটাকে গ্রেট করে খাবারের ওপর ছড়িয়ে দেন তবেই লেবুর সমস্ত গুণগুলো পাবেন।

শরীরের টক্সিন দূর করে 
লেবুর খোসা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভালো পুনরুজ্জীবকের কাজ করে। আপনার শরীরের ভিতর থেকে ক্ষতিকারক পদার্থগুলো বের করে দেয়। তাই আপনি রোজঠাণ্ডা লেবু খান

ক্যান্সার রোধ করে 
ঠাণ্ডা এই লেবু খেলে ক্যান্সারের কোষগুলোকে নষ্ট করে দিতে পারে। এটি স্বাস্থ্যর কোনো রকম ক্ষতি করে না। এটা কেমোথেরাপির থেকে হাজার গুণ বেশি শক্তিশালী। লেবুর আর একটা গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো এটা সিস্ট আর টিউমারের খেত্রেও খুব কার্যকারী।

শরীর চাঙ্গা করে  
লেবুর ঠাণ্ডা রস বা খোসার তৈরি পানীয়ের স্বাদ কয়েক গুণ বেশি। এটি আপনার শরীর ও মন নিমিষেই চাঙ্গা করবে।

ঠাণ্ডা লেবুর অন্যান্য গুণ 
লেবু ব্যাকটেরিয়া ইনফেকশন এবং ছত্রাকের বিরুদ্ধেও খুব ভালো কাজ করে। বিভিন্ন পরজীবী এবং কৃমির ক্ষেত্রেও খুব কার্যকরী। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। বিষণ্ণতার বিরুদ্ধে খুব ভালো কাজ করে। পারকিন্সন এর মতো অসুখে ও পেটের সমস্যা দূর করে। লেবুর মধ্যে থাকা সাইট্রিক অ্যাসিড গলব্লাডারে স্টোন, কিডনি স্টোনকে গলিয়ে দেয়।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর