,



কটিয়াদি-পাকুন্দিয়া’র স্বপ্ন পূরণে নূর মোহাম্মদ

জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে কিশোরগঞ্জ-২ নির্বাচনী এলাকা কটিয়াদি-পাকুন্দিয়ায়  নির্বাচনী প্রচারনায় নেমেছেন সাবেক আইজিপি, রাষ্ট্রদূত, সচিব নূর মোহাম্মদ ।সফল এই কর্মবীর গত কয়েকদিন যাবত স্থানীয় বিভিন্ন বাজারে শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন সাধারণ মানুষের সাথে। তিনি যখনি যে জায়গায় যাচ্ছেন হাজার হাজার সাধারণ জনতা  জমায়েত হচ্ছেন এবং তার কথা শুনছেন মন্ত্রমুগ্ধের মত ।সাধারণ জনতার মুখে মুখে একটিই কথা এবার সপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে কটিয়াদি-পাকুন্দিয়া বাসীর। আওয়ামীলীগ ও তাদের নেতাকর্মীরা মনে করেন  কটিয়াদি-পাকুন্দিয়া দীর্ঘদিন যাবত যে সঠিক নেতৃত্ব শূন্যতায় ভুগছিলেন তা পূরণ হবে সাবেক ছাত্রনেতা বর্ণ্যাট্য কর্ম জীবনের অধিকারী নূর মোহাম্মদের মাধ্যমে।

ছাত্র জীবন থেকেই তিনি ছিলেন সদা হাস্যউজ্জল পরোপকারি, অন্যায়ের কাছে কখনও মাথা করেননি সব সময় কাজ করেছেন জন সাধারণের জন্য।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র থাকা অবস্থায় বিপুল ভোটে হাজী মুহম্মদ মুহসিন হলের ভিপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। ছাত্র জীবন শেষে পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই মেধাবী সরকারের উচ্চ পর্যায়ে প্রায় ৩২ বছর সফলতার সাথে কাজ করে কর্মজীবনের সমাপ্তি টানেন।দীর্ঘ সফল কর্ম জীবন শেষে নিজ এলাকা কটিয়াদি মানিকখালীতে যুব ও ক্রীড়া মন্থনালয়ের সহায়তায় গড়ে তুলেছেন মানিকখালী টেকনিক্যাল অ্যান্ড হেলথ কেয়ার সেন্টার। যেখান থেকে প্রতিমাসে প্রায় শতাধিক যুবক-যুবতি বিভিন্ন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ নিয়ে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন কোম্পানিতে কাজ করছেন এবং এই সেন্টার থেকে প্রতিদিন স্বাস্থ্য সেবা নিচ্ছেন এলাকার সাধারণ মানুষজন ।    

প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা দলের প্রতিটা বৈঠক এমনকি মন্ত্রি সভার বৈঠকেও গুরুত্ব দিচ্ছেন একাদশ সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন।  তিনি বারবার এম পি মন্ত্রিদের সতর্ক করছেন আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়া হবে মেধাবী,যোগ্য ও জনপ্রিয়তার ভিত্তিতে ।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সতর্কবার্তা ও দূরদর্শীতা কটিয়াদি-পাকুন্দিয়া’র আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা ও সচেতন জাগ্রত জনতা  প্রায় নিশ্চিত যে আগামী নির্বাচনে সংসদীয় আসন কিশোরগঞ্জ-২ থেকে মনোনয়ন পাচ্ছেন নূর মোহাম্মদ ।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবিন্দুরা মনে করেন কটিয়াদি-পাকুন্দিয়ায় আওয়ামীলীগের ঘাটি থাকা সত্ত্বেও সঠিক নেতৃত্বের অভাবে আমরা আজ অনেক কিছু থেকে বঞ্চিত। স্থানীয় নেতা-কর্মীরা মনে করেন ২০১৯ সালের জাতীয় নির্বাচনে দেশরত্ন শেখ হাসিনা যদি নূর মোহাম্মদকে মনোনয়ন দেন কটিয়াদি-পাকুন্দিয়ায় বিপুল ভোটে নৌকার জয় হবে এতে কোন রকম সন্দেহ নেই । দলমত নির্বিশেষে সাধারণ জনতারও  একটাই কথা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশটাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য যেভাবে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নূর মোহাম্মদের  মত দেশ প্রেমিক কর্মট হাতগুলো যদি প্রধানমন্ত্রীর সহকর্মী হয়ে সহযোগিতা করেন তাহলে আমরা একদিন সত্যিকারের সোনার বাংলা দেখব। পাশা-পাশি আমাদের এলাকারও অনেক উন্নয়ন হবে ।

এ ব্যাপারে নূর মোহাম্মদ বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থাকাকালীন সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা ১৯৭৯ সালে বিপুল ভোটে হাজী মুহম্মদ মুহসিন হলের ভিপি নির্বাচিত করেন। পরবর্তীতে কর্মজীবনে দেশে-বিদেশে প্রায় ৩২ বছর সরকারী চাকুরীতে কর্মরত ছিলাম। সেই ছাত্র জীবন থেকে কর্ম জীবন প্রতিটা ক্ষেত্রে একটি চিন্তাই আমার মাথায় ছিল মানুষকে সেবা দেয়া। ছাত্র ও কর্ম জীবনে যেভাবে কাজ করে এসেছি কটিয়াদি-পাকুন্দিয়ার জনগণ যদি আমাকে কাজ করার সুযোগ করে দেয় আগামী দিনে সকলের সহযোগিতায় সাধারণ মানুষকে আরো ভাল সেবা দিতে পারব বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি ।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর