,



ত্বকের অবাঞ্ছিত লোম তুলতে নিরাপদ ঘরোয়া উপায়

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ত্বকের অতিরিক্ত লোম আমাদের সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষ করে নারীদের ক্ষেত্রে এটি বড় সমস্যা! তাই অনেক নারীরা পার্লারে গিয়ে ওয়াক্স করে থাকেন। কিন্তু এই
করোনার দুর্যোগের সময় পার্লারে যেতেও ভয়! কিন্তু তাতে কি, ঘরে বসেই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন পদ্ধতিতে অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে পারবেন।

ত্বকের অবাঞ্ছিত লোম তুলে ফেলার জন্য অনেকেই বাজারে উপলব্ধ নানা ‘হেয়ার রিমুভাল ক্রিম’ বা ‘ওয়াক্সিং জেল’ ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এ ক্ষেত্রে ক্ষতিকর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার
একটা ঝুঁকি থেকেই যায়। ত্বকে র‌্যাশ, জ্বালা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে ঘরোয়া উপায়েই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন পদ্ধতিতে ওয়াক্স করে নেওয়া যেতে পারে।

আসুন জেনে নেওয়া যাক তার পদ্ধতি…

উপকরণ:

১. ৩ কাপ চিনি,

২. আধা কাপ পাতি লেবুর রস

৩. আধা কাপ পানি

৪. ২ চামচ এসেনসিয়াল ওয়েল বা টি ট্রি ওয়েল

৫. ৩-৪ চামচ মধু

৬. পরিস্কার মোটা কাপড় বা ওয়াক্স স্ট্রিপ।

ওয়াক্সিংয়ের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন ঘরোয়া পদ্ধতি

১. একটি পাত্রে সামান্য পানি দিয়ে চিনি গরম করুন। ভাল করে নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না চিনি গলে যায়।

২. চিনি গলে যাওয়ার পর এর সঙ্গে মধু, লেবুর রস আর এসেনশিয়াল ওয়েল দিন। এই মিশ্রণটি ঘন না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তার পর পাত্রটি আঁচ থেকে নামিয়ে নিন।

৩. মিশ্রণটি ঠাণ্ডা হওয়ার পর একটি কাঠের কাঠি বা কাঠের সামান্য চওড়া টুকরো দিয়ে সেটি হাতে-পায়ের লোমের মাখিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন, ওয়াক্স (মিশ্রণটি) খুব বেশি পাতলা
বা ঘন যেন না থাকে আবার গরমও যেন না থাকে। মিশ্রণটি গরম থাকলে ত্বক পুড়ে যেতে পারে।

৪. এবার ত্বকের মিশ্রণ মাখানো অংশের উপর পরিস্কার মোটা কাপড় বা ওয়াক্স স্ট্রিপ ভাল করে চেপে লাগিয়ে দিন। তারপর লোমের যে দিকে বৃদ্ধি তার উল্টো দিকে টানুন।

এই ঘরোয়া উপায়ে পর পর দুই থেকে তিন বার করার পর দেখবেন পার্লারের মতো পারফেক্ট ওয়াক্স হয়ে গিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর