,



বিড়াল দিবস আজ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ বিড়াল সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রাণী কি-না, এ নিয়ে তর্ক হতে পারে। তবে কম-বেশি সবাই বিড়ালের চলনবলন বেশ পছন্দ করে। চলন বলতে ‘ক্যাটওয়াক’ আর বলন মানে ‘মিঁয়াও’ শব্দ। আদুরে এই প্রাণীটির বিশেষ দিন আজ। প্রতিবছর ৮ আগস্টে আন্তর্জাতিক বিড়াল দিবস পালিত হয়।

ইন্টারন্যাশনাল ফান্ড ফর অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ারের উদ্যোগে ২০০২ সালে যাত্রা শুরু হয় এ দিবসের। এরপর থেকে প্রতিবছর যথারীতি বিশ্বব্যাপী দিবসটি পালিত হয়ে আসছে। এ দিনকে অনেকে ‘পোষাপ্রাণী’ দিবসও বলে থাকেন। কারণ পোষাপ্রাণী হিসেবে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পালিত হয় বিড়াল। পৃথিবীতে পোষা বিড়ালের সংখ্যা ৫০০ মিলিয়নেরও বেশি।

বিড়াল খুবই আদুরে আর আহ্লাদি ধরনের প্রাণী। শান্তশিষ্ট স্বভাব হলেও এর চেহারা ছোটখাটো বাঘের মতো, একই গোত্রের কি না! তাই বিড়ালকে বলা হয় বাঘের মাসি!

সায়েন্সকিডসে বিড়ালকে বেশ কিছু মজার তথ্য আছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, বিড়াল যখন হাঁটে, তখন প্রতিটি পদক্ষেপে তাদের পেছনের পা ঠিক সেখানেই ফেলে যেখানটায় সামনের কদম পড়েছে। এতে করে আওয়াজের পরিমাণ চূড়ান্তভাবে কমে যায় এবং পায়ের ছাপের অস্তিত্বও থাকে না।

বিড়াল রাতে খুবই ভালো দেখতে পায়। এক হিসেবে এ সময়ে তারা মানুষের চেয়ে ছয়গুণ স্পষ্ট দেখতে পায়। এ ছাড়া তাদের ঘ্রাণ ও শ্রবণশক্তিও খুব ভালো। দিনের মধ্যে প্রায় ১৩-১৪ ঘণ্টাই ঘুমিয়ে কাটায় বিড়াল! এই লম্বা ঘুম দিয়ে তারা নিজেদের শক্তি সংরক্ষণ করে।

আন্তর্জাতিক বিড়াল দিবস মানুষের পোষা বন্ধু বিড়াল এবং এদের সাহায্য ও সুরক্ষার উপায়গুলো সম্পর্কে জানতে ভূমিকা পালন করে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর