,



রাজাপুরে বিচার চেয়ে বিপাকে মুক্তিযোদ্ধার পরিবার

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায় নির্যাতিত একটি মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বিচারের জন্য মামলা করে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে আসামিরা। ফলে নিজেদের জীবন বাঁচাতে তারা এখন ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

বুধবার বেলা ১১টায় রাজাপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের চাড়াখালী গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম হাওলাদার (৮০) ও তার পরিবারের সদস্যরা।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম হাওলাদার লিখিত অভিযোগে জানা যায়, ৩০ বছর আগে মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম চাড়াখালী গ্রামে একটি জমি ক্রয় করেন। সেই জমিতে গত ৩ আগস্ট গাছের চারা রোপণ করে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিবেশী রুস্তম গাজী ও আবদুল বারেকসহ ৩০-৩৫ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়।

জমিতে তাদেরও অধিকার রয়েছে বলে দাবি হামলাকারীদের। হামলায় মুক্তিযোদ্ধা রহিমসহ তার পরিবারের সাতজন গুরুতর আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে বিচারের জন্য মুক্তিযোদ্ধা রহিম হাওলাদারের ছেলে অকিল হাওলাদার ৬ আগস্ট থানায় মামলা করতে গেলে তা নেয়নি পুলিশ।

নিরুপায় হয়ে তিন দিন পর ঝালকাঠি আদালতে মামলা করেন মুক্তিযোদ্ধা রহিম। আদালত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাজাপুর থানাকে মামলা এজাহার গ্রহণের নির্দেশ দেয়। মামলা এজাহারভুক্ত হওয়ার পরও আসামিরা এলাকায় ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না বলে অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শাহ আলম বলেন, বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। আদালত ইতিমধ্যে মামলার ১০ আসামিকে জামিন দিয়েছেন। বাকি আসামিরা পলাতক রয়েছে।

রাজাপুর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী মামলা এজাহারভুক্ত করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর