,



পপির সঙ্গে বিয়ের খবর এনজয় করছেন জায়েদ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ গত কয়েক মাস ধরে সোশ্যাল মিডিয়া ও গণমাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পপি ও নায়ক জায়েদ খানের বিয়ের খবর। দুই তারকার বেশ কিছু অন্তরঙ্গ ছবিও ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকসহ অন্যান্য মাধ্যমে। সেখানে দাবি করা হয়, ২০১৭ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি বিয়ে হয় পপি-জায়েদের। এরপর তারা ৮/১ নিউ ইস্কাটন রোডের একটি বাড়িতে একসঙ্গে থাকতেও শুরু করেন।

বিষয়টি নিয়ে কিছুদিন আগে প্রথম সারির একটি দৈনিকের মুখোমুখি হয়ে সবকিছু পরিষ্কার করেন নায়িকা পপি। দাবি করেন, তাদের বিয়ের খবর একেবারেই সত্যি নয়। তিনি শুধু শাবনূর ও ফেরদৌসদের অনুরোধে জায়েদকে চলচ্চিত্রে প্রমোট করেন, তার সঙ্গে অনেকগুলো স্টেজ শো করেন এবং চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে তাকে সমর্থন করেন, তার হয়ে কাজও করেন। এর বাইরে জায়েদের সঙ্গে তার আর কোনো সম্পর্ক নেই।

এবার এমটি ওয়ার্ল্ড নামের একটি অনলাইন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে একই দাবি করলেন জায়েদ খানও। সেখানে পপির সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে অভিনেতা বলেন, ‘এই খবরে আমি খুবই বিস্মিত। তবে বিব্রত না। কারণ, নায়ক-নায়িকাদের কেরিয়ারে এটা থাকবেই, খারাপ কিছু না। আর আমার সঙ্গে জড়িয়ে এমন একজন জনপ্রিয় নায়িকা ও মানুষের কথা উঠেছে, যিনি তিনবার জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন। কাজেই এগুলোকে আমি আসলে এনজয় করছি।’

সহকর্মীদের অনেকে বলেন, নায়ক-নায়িকাদের নিয়ে কনটোভার্সি (বিতর্ক) থাকবেই। তা না হলে তুমি কিসের শিল্পী। এত যদি ভদ্র সেজে থাকো, তাহলে তো কনটোভার্সি হবে না। তো পপি ম্যাডামের সঙ্গে বিষয়টা হচ্ছে, উনার সঙ্গে গত কমিটিতে (বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি) একসঙ্গে ছিলাম। এছাড়া অনেকগুলো শো করেছি উনার সঙ্গে। মানে আমার জন্য হায়েস্ট স্টেজ শো বলতে পারেন। সেটআপ হয়ে গেয়েছিলাম আমরা।’

পপির সঙ্গে বিয়ে সংক্রান্ত গুজবের ব্যাখ্যা দিয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘আমরা যেহেতু একসঙ্গে অনেক কাজ করেছি, ফটোশ্যুট করেছি, সেগুলো মানুষ ফেসবুকে দিয়ে গুজব সৃষ্টি করেছে, পপি-জায়েদের বিয়ে। ভিউ বাড়িয়েছে। এখন তো সবচেয়ে বড় সমস্যা ইউটিউব আর ফেসবুক। ইউটিউবে তো যা তা ভিডিও ছাড়ে। নারিকেল গাছের নিচে দাঁড়িয়েও ভিডিও করে ভিউ বাড়ানোর জন্য অনেক কিছু পোস্ট করে দেয়।’

জায়েদ আরও বলেন, ‘দেখলাম, পপি ম্যাডাম একটা নিউজ পেপারের সাক্ষাৎকারে বিষয়টা ক্লিয়ার করে দিয়েছেন। আমিও ক্লিয়ার করে দিতে চাই যে, বিয়ে সাদি কিছু হয়নি। আমাদের ফটোশ্যুটের কিছু ছবি ছিল, সেগুলো একটু এডিট করে ফেসবুকে ছেড়ে দিয়েছে। এটাই আর কিছু না। বিয়ে এখনো করিনি। ব্যাচেলরই আছি। লুকিয়েও কোথাও বিয়ে করে রাখিনি। কোথাও কাবিনও হয়নি, কাগজপত্রও নেই। বিয়ে আপাতত করছি না। আর কিছুদিন যাক, একটু ম্যাচুরিটি আসুক, তারপর বিয়ে।’

প্রসঙ্গত, এর আগে নায়ক শাকিল খানের সঙ্গে পপির বিয়ের খবর রটেছিল। এ বিষয়ে নায়িকা কিছুদিন আগে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন। ‘আমি কখনোই এসব নিয়ে কিছু বলিনি। শাকিল খান হয়তো আমাকে পছন্দ করত, ভালোবাসতো। এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার ছিল। আসলে, যতবারই আমি নায়কদের হেল্প করতে চেয়েছি, ততবারই বিয়ের খবর ছড়িয়েছে। সমসাময়িকদের মধ্যে আমি অবিবাহিত ছিলাম বলেই শাকিলের সঙ্গে বিয়ের খবর রটেছিল।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর