,



আমি কি তাঁর ঘরের বউ শাকিব কেন আমার খবর রাখবে?

ফেব্রুয়ারি থেকে একেবারেই যোগাযোগের বাইরে চলে গেলেন। মুঠোফোন বন্ধ, নেই ফেসবুকেও। আগে চুক্তিবদ্ধ হওয়া দুটি ছবির শুটিং হচ্ছে তাঁকে ছাড়াই। কোথায় অপু বিশ্বাস? কী হলো তাঁর? অপুর ব্যক্তিগত সহকারী শেলির মাধ্যমে কথা হলো তাঁর সঙ্গে।
হঠাৎ কোথায় হারালেন?
আমাকে নিয়ে সবার ভুল ধারণা তৈরি হয়েছে। আমি কেন হারিয়ে যাব! আগের মতোই তো চলছি। নিজের কাজ করছি- শপিং করছি, জিমের (ঢাকার নিকেতনে অভিনেত্রীর নিজস্ব জিমনেসিয়াম) তদারকি করছি। পরিবারের সঙ্গেও বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে যাচ্ছি। তবে হ্যাঁ, বলতে পারেন মিডিয়ায় কাজ করছি না।
ফোন বন্ধ কেন? সামাজিক যোগাযোগের সব মাধ্যমেই তো অনুপস্থিত…
সারা দিন বিরক্তিকর ফোন আসে। নানা ধরনের প্রশ্ন। নতুন কী ছবি হাতে, মুটিয়ে গেছি কি না, জিম করছি তো—এসব ফালতু প্রশ্নের উত্তর দিতে কার ভালো লাগে, বলেন? আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কথা বলছেন, আমার মতো অন্য তারকাদের ভেরিফায়েড পেজে গিয়েই দেখেন না, কোনো পোস্ট দিলেই সঙ্গে সঙ্গে কিছু মানুষ বাজে মন্তব্য করেই যাচ্ছে। অশালীন ভাষাও ব্যবহার করে কেউ কেউ। এসব দেখে ঘৃণা জন্মেছে। তাই ফেসবুক, টুইটার এড়িয়ে চলছি।
সহকর্মীরা, এমনকি শাকিব খানও তো আজকাল আপনার সম্পর্কে কোনো তথ্য দিতে পারছেন না…
সহকর্মীদের সঙ্গে এখন যোগাযোগটা কম। হাতে থাকা ছবির বেশির ভাগ শুটিং শেষ। ফলে কাউকে আর বিরক্ত করি না। আরেকটা কথা, শাকিব কেন আমার খবর রাখবে? আমি কি তাঁর ঘরের বউ? আমরা শুধু পর্দাজুটি, ঘরের জুটি নই।
এই তিন মাস কী কী করলেন?
পরিবারকেই বেশি সময় দিচ্ছি। অনেক জায়গায় বেড়িয়েছি। বগুড়ায়ও ছিলাম বেশ কিছুদিন। সেখানকার বাড়ির কিছু কাজ বাকি ছিল, সেটা শেষ করেছি। ফিটনেসের প্রতি আরেকটু সিরিয়াস হয়েছি। বলতে পারেন, নতুন চমক দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।
‘বসগিরি’ ও ‘শ্যুটার’ ছবি দুটি ছেড়ে দেওয়ার কারণ নাকি শাকিব খান?
কে বলেছে এই সব বাজে কথা! বরং শাকিবই তো আমাকে কাজ করার কথা বলেছে।
অনেকে বলছেন, শাকিব খানের সঙ্গে আপনার মানসিক দ্বন্দ্ব চলছে…
বাজারে তো কত কথাই চালু আছে। অনেকে নাকি বলেন, শাকিবের সঙ্গে আমি রীতিমতো সংসার করছি! আসলে কি তাই?
তাহলে নতুন কোনো ছবি নেই কেন হাতে?
‘বসগিরি’ আর ‘শ্যুটার’ তো ছিলই। আমিই তো সরে দাঁড়ালাম। মনতাজুর রহমান আকবর ও ওয়াজেদ আলী সুমন ভাইয়ের দুটি ছবির ব্যাপারেও কথা হয়েছে। হাতে তো কম ছবি নেই- ‘সম্রাট’, ‘রাজনীতি’, ‘পাংকু জামাই’, ‘লাভ ২০১৪’। ‘সম্রাট’ ও ‘রাজনীতি’ মুক্তি পাবে শিগগিরই। এ দুটি মুক্তির পরই নতুন ছবি হাতে নেব।
সত্যি করে বলেন তো, বিয়ে করেছেন কি না?
হা হা হা…বিয়ে করলে আপনারা জানতেন না! আমি অতটা সেলফিশ নই। যে ইন্ডাস্ট্রি আমাকে অপু বিশ্বাস বানিয়েছে, সেই ইন্ডাস্ট্রিকে না জানিয়ে বিয়ে করব না। তবে হ্যাঁ, সামনের বছর কিছু একটা ঘটতে পারে।
ব্যবসা কেমন চলছে?
জিমটা তো আরো বড় করলাম। নতুন কিছু ইনস্ট্রুমেন্ট কিনেছি, ফ্লোরও বড় করতে হয়েছে। জিমের সদস্যসংখ্যাও বেড়েছে। ভাবছি, এবার নিকেতনের পর গুলশানেও আরেকটি শাখা খুলব।
ব্যবসা, নাকি অভিনয়- অপুর ভবিষ্যৎ তাহলে কোনটি?
অভিনয়টা আমার মূল পেশা। তবে ব্যবসাটাও বেশ উপভোগ করছি। দেখি, জিমের পর পার্লার ও রেস্টুরেন্টের ব্যবসা করা যায় কি না। -কালের কন্ঠ

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর