,



জাতীয় পাটির অষ্টম কাউন্সিল

দশম জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পাটির অষ্টম কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে শনিবার। প্রায় ৫০ হাজার কাউন্সিলর ও ডেলিগেটসহ লক্ষাধিক প্রতিনিধি এতে যোগ দেবেন বলে আশা করছেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

জাতীয় পার্টির অষ্টম কাউন্সিলের প্রথম পর্ব শুরু হবে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সকাল ১০টায়। উদ্বোধনী ও সাধারণ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে বেলা দুইটায় এই পর্ব শেষ হবে। এরপর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিলরদের নিয়ে মূল সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

Ershad-Photo-1-09.05.2016কাউন্সিল সামনে রেখে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দলের মহাসচিব পরিবর্তন আসেন। পাশাপাশি দলের ঐক্য ধরে রাখতে তিনি সংসদে বিরোধী দলের নেতা বেগম রওশন এরশাদকে সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন। এরআগে এরশাদ তার ছোট ভাই গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে পার্টির কো-চেয়ারম্যান করেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের প্রেস অ্যান্ড পলিটিক্যাল সেক্রেটারি ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায় জানান, অষ্টম জাতীয় কাউন্সিলের সকল প্রস্তুতি এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে সারা দেশে নেতাকর্মীদের মধ্যে নতুন প্রাণচাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এ সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় পার্টি নতুনভাবে যাত্রা শুরু করবে।

তিনি আরো জানান, জাতীয় পার্টির কাউন্সিলে সরকারি দল আওয়ামী লীগসহ মহাজোটে সরকারের সকল শরীকদলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশে অবস্থিত বিভিন্ন দেশের মিশন প্রধানদেরও সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

১৯৮৬ সালের ১ জানুয়ারি তৎকালীন সেনাশাসক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের উদ্যোগে জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠিত হয়। ইতোমধ্যে দলটি ৩০ বছর পার করেছে। গত ১ জানুয়ারিতে জাতীয় সম্মেলন করার কথা থাকলেও ওই সময় অনেক জেলা সম্মেলন সম্পন্ন না হওয়ায় তারিখ পেছানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর