,



অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা রোধ করুন

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ প্রযুক্তির উৎকর্ষে পাল্টে গেছে পৃথিবী। বর্তমান পৃথিবী আর মান্ধাতার আমলের পৃথিবীর মধ্যে যে বিস্তর ফারাক, যা একমাত্র সম্ভব হয়েছে প্রযুক্তি বিপ্লবের কারণে। মানুষের খাদ্যাভ্যাস, বিনোদনের মাধ্যম, কর্মক্ষেত্র থেকে শুরু করে দৈনন্দিন জীবনযাত্রার সবকিছুতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে প্রযুক্তি। আগে মানুষ যা কল্পনাও করতে পারত না, এখন তা হরহামেশাই করা সম্ভব হচ্ছে প্রযুক্তির স্পর্শে। এ কারণেই হয়তো প্রযুক্তিকে অনেকে সমীহ করে আলাদীনের আশ্চর্য প্রদীপের সঙ্গে তুলনা করে। কিন্তু এই প্রযুক্তিরই অপব্যবহার কখনও কখনও হয়ে ওঠে গলার কাঁটা, যেমনটা আমরা প্রায়ই দেখতে পাই অনলাইনে পণ্য কেনাকাটার ক্ষেত্রে।

দেশে প্রথম যখন অনলাইনে পণ্য বেচাকেনার সুযোগ তৈরি হয়, তখন অনেকে এটিকে তাদের ভাগ্য পরিবর্তনের চাবিকাঠি ভেবে পুলকিত হয়েছিল। এই অনেকের অধিকাংশই যে বেকার বা আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী নয়, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কোনোরকম খরচ ছাড়াই পণ্য কেনাবেচার পরিবেশই মূলত তাদের এই প্লাটফর্মের প্রতি আগ্রহী করে তুলেছিল। ফলে বাড়তি আয়ের এই সুযোগ লুফে নিতে তারা দেরি করেনি। অন্যদিকে ঘরে বসে পছন্দসই পণ্য কেনার সুযোগ পেয়ে ক্রেতারাও বেশ খুশি হয়। নিজের পছন্দের জিনিসপত্র কিনতে তাদেরকে আর বাড়তি টাকা খরচ করে যেতে হয় না কোনো শপিংমল বা বাজারে। পছন্দের জিনিস এক ক্লিকেই ঘরে। ফলস্বরূপ একটা সময় প্রযুক্তির কল্যাণে বদলে যেতে থাকে অনেক তরুণ উদ্যোক্তার ভাগ্য, অনলাইন প্লাটফর্মকে কেন্দ্র করে তৈরি হতে থাকে কর্মসংস্থান। কিন্তু অনলাইন মার্কেটিংয়ের সুনামের সুযোগ নেয় কিছু অসাধু প্রতারকচক্র। তারা অনলাইন মার্কেটিংয়ের জগৎজুড়ে বিছাতে থাকে প্রতারণার জাল। তাদের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হতে থাকে হাজারো সাধারণ মানুষ। তাদের প্রতারণার রয়েছে নানা অভিনব পদ্ধতি। কখনো ক্রেতাকে এক ধরনের পণ্য দেখিয়ে অন্য পণ্য কিংবা আসল পণ্যের মোড়কে নকল পণ্য সরবরাহ, কখনোবা পরিমাণে কম দেয়া, আবার কখনো আগাম অর্থ নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়া-এসব তাদের নিত্যনৈমিত্তিক কাজ। এভাবেই সাধারণ মানুষকে সর্বস্বান্ত করতে থাকে তারা। লক্ষণীয়, তারা কোনো নির্দিষ্ট পন্থা অবলম্বন করেই থেমে থাকে না। প্রতিনিয়ত তাদের প্রতারণার কৌশল করতে থাকে পরিবর্তন। ফলস্বরূপ, আস্থার জায়গা হারিয়ে মুখথুবড়ে পড়ছে অনলাইন মার্কেটিং। বলা যায়, একশ্রেণির অসাধু প্রতারকচক্রের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে ই-কমার্স খাত। আর তাদের কারণে আস্থা হারাচ্ছে অসংখ্য সৎ উদ্যোক্তা। ফলে ই-কমার্স জগতে সদ্য তৈরি হওয়া অবস্থান হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে অসংখ্য তরুণ। হাজারো উদ্যোক্তার কর্মস্থল অনলাইন মার্কেটিং তথা ই-কমার্সের জগৎকে নিরাপদ রাখতে কর্তৃপক্ষকে এখনই মাঠে নামতে হবে, সাইবার জগতে বাড়াতে হবে নজরদারি। পাশাপাশি ই-কর্মাস খাতে প্রণয়ন করতে হবে নতুন নীতিমালা ও আইন এবং এর সুষ্ঠু প্রয়োগের মাধ্যমে নিশ্চিত করতে হবে এ জগতের নিরাপত্তা। তবেই এদেশের তরুণরা পারবে নিজেদের মতো করে বাঁচতে, পারবে দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে।

তানভীর তানিম : শিক্ষার্থী, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর