,



মাগুরার জোড়া মাথার কন্যাশিশুর মৃত্যু ঢামেকে

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ মাগুরায় জোড়া মাথার কন্যাশিশু ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছে। বুধবার রাত ৮টা ৪০মিনিটে নবজাতকটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. আয়েশা সিদ্দিকী জানান, অ্যাম্বুলেন্স যোগে শিশুটিকে বুধবার রাতে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। হাসপাতালে আনার পর শিশুটিকে আমরা মৃত অবস্থাতে পেয়েছি। নবজাতকটির দেহ একটি তবে মাথা দুটি।

শিশুটির বাবা পলাশ মোল্লা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে মাগুরা শহরের জাহান প্রাইভেট হাসপাতালে শিশুটির জন্ম হয়। পরে সেখান থেকে সন্ধ্যায় শিশুটিকে মাগুরা সদর হাসপাতালের শিশু বিভাগে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে শিশুটিতে নিয়ে ঢামেক হাসপাতালে আসেন।

গর্ভের সন্তানের জটিলতা রয়েছে জেনে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী দুই সপ্তাহ আগে অন্তঃসত্ত্বা সোনালীকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে হাসপাতালের গাইনি ও প্রসূতি বিভাগ থেকে ছয় সপ্তাহ পর সোনালীকে হাসপাতালে আনার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু মঙ্গলবার সোনালীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। পরে তাকে সদর হাসপাতাল রোডের জাহান প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অস্ত্রোপচারে কন্যা শিশুটির জন্ম হয়। তামিম ইকবাল (৬) নামে তার আরেকটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পলাশ মোল্লা একজন কৃষক। তার বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার জগদল গ্রামে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর