,



তরুণীর ছোট পোশাকে পাইলটের আপত্তি

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ বিশ্বের রক্ষণশীল দেশগুলোতে মহিলাদের পোশাক নিয়ে জারি থাকে একাধিক নিয়মকানুন। নিয়ম ভাঙলে অবধারিত শাস্তি। ডেইলি মেইলের খবর অনুসারে, অস্ট্রেলিয়ার মতো আধুনিক দেশেও ছোট পোশাক পরায় আপত্তি? শুনতে অবাক লাগলেও ছোট পোশাকের কারণেই এক অস্ট্রেলীয় যুবতীকে উঠতে দেওয়া হল না সে দেশের প্রথম সারির বিমানসংস্থার বিমানে! যে খবর জানার পর অনেকেই হতবাক হয়েছেন। জানা গেছে, ওই যুবতীর নাম ক্যাথরিন বাম্পটন। অ্যাডিলেড থেকে গোল্ড কোস্ট যাওয়ার জন্য ভার্জিন অস্ট্রেলিয়ার বিমানসংস্থার একটি টিকিট কেটেছিলেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে বিমানে ওঠার সময়ই বাধাপ্রাপ্ত হন। বিমানসেবিকারা তাঁকে জানান, বিমানচালকের ক্যাথরিনের ছোট পোশাকে আপত্তি রয়েছে। তাই তিনি যেন নিজের পোশাক বদলে তবেই বিমানে চড়েন।

গোটা ঘটনায় রীতিমতো অবাক হন ওই যুবতী। পরবর্তীতে অজি সংবাদমাধ্যমকে এক সাক্ষাৎকারে গোটা বিষয়টি  জানান। ক্যাথরিন বলেন, ওই সময় যাত্রীদের সামনেই আমাকে পোশাক পরিবর্তনের কথা বলেন বিমানসেবিকা। যা আমাকে বিড়াম্বনায় ফেলে দেয়। আমাকে বলা হয়, এই পোশাকে শরীরের অনেকটা অংশ দেখা যাচ্ছে, যা বিমানচালকের পছন্দ নয়। ওই সময় সবাই আমাকেই দেখছিল। যা খুবই অস্বস্তিজনক ছিল। জানা গেছে, এরপরই একটি জ্যাকেট পরে ফেলেন ক্যাথরিন। তারপরই বিমানে চড়ার অনুমতি পান। এই ঘটনা জানতে পেরে অবাক ভার্জিন অষ্ট্রেলিয়া নামে ওই বিমানসংস্থার আধিকারিকরা। তাঁরা বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। সংস্থার মুখপাত্র জানান, ভার্জিন অস্ট্রেলিয়া এদেশের জনপ্রিয়তম এয়ারলাইন্স। আমরা যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্যের বিষয়ে যথেষ্ট খেয়াল রাখি। ওই যুবতী সরকারিভাবে এই ঘটনা নিয়ে কোনও অভিযোগ জানাননি। তবে আমরা তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছি  তবে ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই অনেকেই ওই বিমানসংস্থার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর