,



১১ বিঘা জমিতে আফিম চাষ, ৫ কৃষক গ্রেফতার

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ সদর উপজেলার বনখুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ১১ বিঘা জমিতে চাষ হওয়া বিপুল পরিমাণ আফিম তৈরির মূল উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত পপি গাছ ও পপির ফল উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ সময় ৫ কৃষককে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম মোহাইমেনুর রশিদ জানান, গ্রেফতারকৃত ৫ কৃষক হলেন- সদর উপজেলার বনখুর গ্রামের বিপুল চন্দ্র দাসের ছেলে রাজেন্দ্রনাথ দাস (৬০), রুপচাঁন মণ্ডলের ছেলে নইমুদ্দিন মণ্ডল (৬০), বড়তাজপুর গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে গোলাম মোস্তফা (৬৫), পাঁচবিবি উপজেলার পূর্ব বালিঘাটা গ্রামের আব্দুল রউফ ওরফে রবের ছেলে রিপন সর্দার (৩৭) ও বালিঘাটা বাজারের কুমুণ্ড বিহারী দাসের ছেলে নেপাল চন্দ্র দাস (৫২)।

জেলা জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা সদর উপজেলার পুরানাপৈল ইউনিয়নের বনখুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। ওই এলাকায় অবৈধভাবে প্রায় ১১ বিঘা জমিতে চাষ করা আফিম উৎপাদনের কাজে ব্যবহৃত ৪ লাখ ২৩ হাজার ৫০০টি পপি গাছ ও ১৬ লাখ ৯৪ হাজার পপির ফল উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে জয়পুরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আফিম চাষকারী কৃষকরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানান, তরকারির সুস্বাদু উপাদেয় মসলা ভেবে তারা ৩ বছরে আগে পপি চাষ শুরু করে। এটি মাদক হিসাবে ব্যবহার হয় বিষয়টি তাদের জানা ছিল না।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর