,



বড় ডিসপ্লে ও ট্রিপল ক্যামেরা সমৃদ্ধ ওয়ালটনের নতুন ফোন বাজারে

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ বড় ডিসপ্লের নতুন আরেকটি ফোরজি স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে প্রযুক্তিপণ্যের দেশীয় প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। যার মডেল ‘প্রিমো এনএফফাইভ’। আকর্ষণীয় ডিজাইনের ট্রিপল ক্যামেরার ফোনটিতে রয়েছে শক্তিশালী র‌্যাম-রম ও ব্যাটারি। এর ব্যাক কভারে ব্যবহৃত হয়েছে মোল্ডেড টেক্সচার। যা হ্যান্ডসেটিকে করেছে আরো অভিজাত ও অনন্য।

দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা, মোবাইলের ব্র্যান্ড ও রিটেইল আউটলেটের পাশাপাশি ঘরে বসেই ফোনটি অনলাইনের ই-প্লাজা () থেকে কেনার সুযোগ রয়েছে। কার্বন ব্ল্যাক, আর্থ ব্লু, এমারেল্ড গ্রিন এবং প্যাস্টেল পার্পেল-এই চারটি ভিন্ন রঙে ফোনটি বাজারে এসেছে। দাম মাত্র ৯,৬৯৯ টাকা।

ওয়ালটন সেল্যুলার ফোন বিক্রয় বিভাগের প্রধান আসিফুর রহমান খান জানান, ‘প্রিমো এনএফফাইভ’ মডেলের স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ৬.৮২ ইঞ্চির বিশাল পর্দা। ২০:৯ রেশিওর এইচডি প্লাস ইনসেল আইপিএস ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লের রেজুলেশন ১৬৪০ বাই ৭২০ পিক্সেল। ফলে ছবি বা ভিডিও দেখা, গেম খেলা কিংবা ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ে মিলবে আনন্দময় অভিজ্ঞতা। গ্রাহক হাতের মুঠোয় মুভি থিয়েটারের স্বাদ পাবেন।

নতুন এই ফোনের প্রয়োজনীয় গতি নিশ্চিতে আছে ১.৮ গিগাহার্টজের ১২ ন্যামোমিটার হেলিও এ২০ কোয়াডকোর প্রসেসর। প্রাণবন্ত ভিডিও ও গেমিং অভিজ্ঞতা দিতে গ্রাফিক্স হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে পাওয়ার ভিআর জিই৮৩০০। ৩ গিগাবাইট র‌্যামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় ফাইল এতে সংরক্ষণে রয়েছে ৩২ গিগাবাইট স্টোরেজ। যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফোনটির পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত এফ/২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ পিডিএএফ প্রযুক্তির অটোফোকাস এইচডি ট্রিপল ক্যামেরা। ৫পি লেন্স সমৃদ্ধ এর ১৩ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরায় রয়েছে ১/৩.০৬ ইঞ্চির সেন্সর। ফলে উজ্জ্বল, ঝকঝকে রঙিন ছবি পাবেন গ্রাহক। আকর্ষণীয় সেলফির জন্য সামনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। যা অল্প আলোতেও দেবে নিখুঁত সেলফি। উভয় ক্যামেরায় ফুল এইচডি ভিডিও ধারণ করা যাবে। এতে রয়েছে বিএসআই সেন্সর, বোকেহ, বিউটি, ফেস কিউট, টাচ ফোকাস, টাচ শট, ফিঙ্গার ক্যাপচার, সেলফ টাইমার, টাইম মার্ক, হোয়াইট ব্যালান্স, ফেস ডিটেকশন, ডিজিটাল জুম, প্যানোরমা, নরমাল মোড, প্রোফেশনাল মোড, ওয়াটারমার্ক, জিফসহ অসংখ্য আকর্ষণীয় ফিচার।
অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত স্মার্টফোনটির প্রয়োজনীয় পাওয়ার ব্যাক-আপের জন্য রয়েছে ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার লি-পলিমার ব্যাটারি।

ডুয়াল ফোরজি সিম সাপোর্টেড ফোনটির মেমোরি কার্ডের জন্য রয়েছে আলাদা স্লট। কানেক্টিভিটির জন্য আছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৫.০, ওটিএ, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে, ল্যান হটস্পট এবং ওটিজি সুবিধা। সেন্সর হিসেবে আছে জিপিএস, এ-জিপিএস নেভিগেশন, এক্সিলারোমিটার (থ্রিডি), ওরিয়েন্টশন, লাইট (ব্রাইটনেস), প্রোক্সিমিটি ইত্যাদি। মাল্টিমিডিয়া ফিচার হিসেবে আছে ফুল এইচডি ভিডিও প্লে-ব্যাক ও রেকর্ডিং সুবিধাসহ এফএম রেডিও। ফোনের সুরক্ষায় রয়েছে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক এবং এন্টি-থেফট প্রযুক্তি।

বাংলাদেশে তৈরি এই স্মার্টফোনে ক্রেতারা পাচ্ছেন বিশেষ রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা। স্মার্টফোন ক্রয়ের ৩০ দিনের মধ্যে যেকোনো ধরনের ত্রুটিতে ফোনটি পাল্টে ক্রেতাকে নতুন আরেকটি ফোন দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও, ১০১ দিনের মধ্যে প্রায়োরিটি বেসিসে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ক্রেতা বিক্রয়োত্তর সেবা পাচ্ছেন। তাছাড়া, এক বছরের এবং ব্যাটারিতে ছয় মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা তো থাকছেই।

উল্লেখ্য, দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ড আউটলেটে ০% ইন্টারেস্টে ৬ মাসের ইএমআই সুবিধায় কেনা যায় যেকোনো মডেলের ওয়ালটন স্মার্টফোন। রয়েছে ১২ মাসের কিস্তি সুবিধাও।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর