,



পশ্চিমবঙ্গের ভোটে এগিয়ে মমতার তৃণমূল

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ভারতে নির্বাচন চলাকালে বুথফেরত জরিপ নিষিদ্ধ। তবে নির্বাচন শুরুর আগ পর্যন্ত করা বিভিন্ন সমীক্ষায় বলা হয়েছে, আসন কমলেও পশ্চিমবঙ্গে আবারও ক্ষমতায় আসছে মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল কংগ্রেস।

শুক্রবার উত্তরবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারণায় মমতা ব্যানার্জি বলেন, প্রথম দুই দফায় ৬০ আসনে ভোট গ্রহণ হয়েছে। আমরা এর মধ্যে ৫০ আসনেই জিততে চলেছি। তৃণমূল সব মিলিয়ে ২০০ আসনে জিতবে। তৃণমূল কংগ্রেস সূত্র বলছে, ২৯৪ আসনের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় অন্তত ১৮০ আসনে জিততে চলেছে তারা। যদিও বিজেপির দাবি, তারা এবার ২০০ আসনে জিতবে এবং সরকার গড়বে।

এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ভাঙা পা নাচাচ্ছেন—এমন একটি ভিডিও নিয়ে হইচই শুরু করেছে বিজেপি। ৭ মার্চ নন্দী গ্রামে প্রচারণায় গিয়ে মমতা পায়ে চোট পান। পায়ে প্লাস্টার করতে হয়েছে। সেই অবস্থায় হুইল চেয়ারে বসে প্রচারণা চালাচ্ছেন তিনি। শুক্রবার ভিডিওটি পোস্ট করে বিজেপির মুখপাত্র প্রণয় রায় অভিযোগ করেন যে, আমরা প্রথম থেকেই বলেছি ঘটনাটি নাটক। এবার দিদি নিজেই সেটা প্রমাণ করেছেন। যে পায়ে ব্যথার জন্য হুইলচেয়ার নিয়ে ঘুরতে হয়, সেই পা তিনি দিব্যি নাচাচ্ছেন! বিজেপির দাবি, ভিডিওটি বৃহস্পতিবার নন্দীগ্রামে বয়াল বুথে মমতা বসে থাকার সময় করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মমতা তৃণমূলের কোনো দলীয় কার্যালয়ে বসে রয়েছেন। সেখানে টেবিলের তলা দিয়ে মমতাকে চোট পাওয়া বাম পা দোলাতে দেখা যাচ্ছে। একটা সময়ে ব্যান্ডেজ করা বাম-পায়ের উপর ডান পা তুলে রাখছেন তিনি। তৃণমূল এ অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল প্রার্থী মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি বলেন, বিজেপি কুৎসিত প্রচারণা চালাচ্ছে। অমানবিক!

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর