,



শিরোপা লড়াই জমিয়ে দিলো বার্সেলোনা

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ এত চেষ্টা, এতবার শট, কিন্তু কিছুতেই কোনও কাজ হচ্ছিল না। তাদেরই সাবেক এক গোলকিপার বাধার দেয়াল হয়ে দাঁড়ানোয় বারবার হতাশায় ডুবতে হচ্ছিল বার্সেলোনাকে। ‘ভাগ্য’ সহায় হয়ে রিয়াল ভায়াদোলিদের এক খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে ১০ জনের বিপক্ষে এগিয়ে যাওয়ার ভালো সুযোগ তৈরি হলো। কিন্তু তাতেও আসছিল না কাঙ্খিত সাফল্য। অবশেষে নির্ধারিত সময়ের ঠিক শেষ মুহ‚র্তে উসমান ডেম্বেলে উদ্ধার করলেন কাতালানদের। ফরাসি ফরোয়ার্ডের গোল লা লিগার শিরোপা লড়াই আরও জমিয়ে দিলো।
ঘরের মাঠে ভায়াদোলিদের বিপক্ষে জিততে কঠিন সংগ্রাম করতে হয়েছে বার্সেলোনাকে। তারপরও গত পরশু ১-০ গোলের জয়ে এল ক্লাসিকোর আগে ৩ পয়েন্ট পাওয়াটা অনেক বড় স্বস্তির। আগামী শনিবার চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে শীর্ষস্থান থেকে মাত্র ১ পয়েন্ট দূরে বার্সেলোনা। ২৯ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রোনাল্ড কোম্যানের দল। সমান ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অ্যাটলেটিকো, আর ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রিয়াল।
ন্যু ক্যাম্পে শুরুতে অগোছালো ফুটবল খেলেছে বার্সেলোনা। ভায়দোলিদের প্রেসিং ফুটবলে বারবারই পজেশন হারিয়েছে। অ্যাটাকিং থার্ডে গিয়ে খেই হারিয়েছেন লিওনেল মেসিরা। আবার গোলমুখে শট রাখলেও তাদেরই একসময়কার গোলকিপার জোর্দি মাসিপের সামনে সুবিধা করতে পারেনি বার্সেলোনা। গোলশ‚ন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধেও ছিল একই চিত্র।
যদিও এই অর্ধে আক্রমণে কিছুটা গতি পায় বার্সার। কিন্তু দুর্দান্ত ফুটবল খেলা ভায়াদোলিদের আত্মবিশ্বাসী ফুটবলে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি। একবার দারুণ সুযোগ এসেছিল ডেম্বেলে ও আতোঁয়া গ্রিজমানের সামনে। মেসির বাড়ানো ডিফেন্সচেড়া চমৎকার পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সামনে থাকা গোলকিপারকে একা পেয়েও লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি ডেম্বেলে। বল মাসিপের হাতে লেগে ফিরে এলে ফিরতি বলে গ্রিজমান ঝাঁপিয়ে হেড করেন, কিন্তু বল পোস্টে বাতাস লাগিয়ে চলে যায়।
ছন্নছাড়া ফুটবলে যখন পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা বার্সেলোনা সমর্থকদের মনে, তখন ‘সৌভাগ্য’ হয়ে আসে ভায়াদোলিদ মিডফিল্ডার অস্কার পিয়ানোর লাল কার্ড। যদিও ডেম্বেলেকে ফাউল করে তিনি সরাসরি লাল কার্ড দেখার মতো অপরাধ করেছেন কিনা, তা নিয়ে প্রশ্নের জন্ম হয়েছে। বার্সেলোনা কিন্তু একজন বেশি নিয়ে খেলার সুবিধা আদায় করতে পারছিল না। নির্ধারিত সময়ের শেষ পথেও যখন গোল আসছিল না, তখন হতাশায় ছেয়ে যায় কাতালানদের ডাগআউটে থাকা সবার মুখ। আর ঠিক সে সময়ই আনন্দের ঝরনাধারা বইয়ে দিলেন ডেম্বেলে।
ফরাসি ফরোয়ার্ড চমৎকার ভলিতে বার্সেলোনাকে এনে দিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ ৩ পয়েন্ট। ডান প্রান্ত থেকে ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ংয়ের বাতাসে ভাসানো চিপ রোনান্দ আরাউহো ঠিক মতো হেড করতে না পারলেও বল চলে আসে ফাঁকায় থাকা ডেম্বেলের কাছে, এই ফরোয়ার্ড বাঁ পায়ের বুলেট গতির ভলিতে বল জড়িয়ে দেন জলে। এত চেষ্টার পর ৯০ মিনিটে গোল, তাই বার্সেলোনার খেলোয়াড়-স্টাফদের আনন্দের বৃষ্টিতে ভিজে যাওয়া!
পরের রাউন্ডে রিয়ালের মাঠে আতিথ্য নেবে বার্সেলোনা। এই ম্যাচের ফল নিঃসন্দেহে শিরোপা নির্ধারণী লড়াইয়ে রাখবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। বার্সা কোচ রোনাল্ড কোমানের কাছে এবারের এল ক্লাসিকোর গুরুত্ব তাই আগের চেয়ে বেশি, ‘আমি মনে করি, এল ক্লাসিকো সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ। অবশ্যই, পরিস্থিতির কারণে এবারেরটা সম্ভবত আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ যেখানে আমরা, রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ লড়াই করছি শিরোপার জন্য।’
মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে নিজেদের মাঠে রিয়ালের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছিল বার্সা। এবার নিজেদের পক্ষে ফল চাইছেন কোমান, ‘নিঃসন্দেহে বিশ্বের সেরা দুটি ক্লাবের মধ্যে এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। আর অবশ্যই শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা বাড়াতে ফলটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর