,



এক সঙ্গে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে!

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ দুজনের সঙ্গেই চুটিয়ে প্রেম করেছেন। বিয়ের সময় যেকোনো একজনকে বেছে নিতে গিয়ে বাঁধে বিপত্তি। দুজনের কাউকে ছাড়তে পারবেন না বুঝতে পেরে দুজনকেই একসঙ্গে বিয়ে করতে চান বলে দুই প্রেমিকার কাছে প্রস্তাব রাখেন।

তাকে অবাক করে দিয়ে এই প্রস্তাবে রাজি হন দুই প্রেমিকাই। দুই প্রেমিকার সঙ্গে একইদিনে একই আসরে গাঁটছড়া বাঁধেন তিনি।

জিনিউজের প্রতিবেদনে জানা গেছে, ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের আদিলাবাদ জেলার জ্ঞানপুর গ্রামে এই অদ্ভূতপূর্ব বিয়ের ঘটনা ঘটেছে। ১৪ জুন একই মন্দিরে এক আসরেই দুই প্রেমিকার পাণিগ্রহণ করেন ওই তরুণ।

জানা গেছে, অর্জুন নামে ওই তরুণ প্রথমে তার এক আত্মীয়ার মেয়ে উষা রানীর প্রেমে পড়েন। পরে অর্জুনের আরেক আত্মীয়ার মেয়ে সুরেখাকেও ভালো লেগে যায় তার। দুজনের সঙ্গেই গোপনে চার বছর প্রেম করেছেন অর্জুন। দুই প্রেমিকার একজনও এ ব্যাপারে ঘুণাক্ষরেও কিছু টের পাননি।

যখন অর্জুনের দুই প্রেমের বিষয়টি জানাজানি হয়, তখন তার মা-বাবা যেকোনো একজনকে বেছে নিতে বলেন। কিন্তু অর্জুন দুজনকেই বিয়ে করতে চান।

এ ব্যাপারে প্রথমে অর্জুন তার মা-বাবাকে রাজি করান। পরে রাজি করান উষা আর সুরেখার মা-বাবাকে। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে সবাইকে রাজি করার পর দুই প্রেমিকার সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন অর্জুন।

এদিকে দুই প্রেমিকাকে একসঙ্গে বিয়ে করার বিষয়টি বেশ ইতিবাচক ভাবেই নিয়েছেন অনেকে।

এ ব্যাপারে সেখানকার গোত্র প্রধান জানিয়েছেন, যেহেতু পাত্রীরা একজনকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছেন এবং পাত্র আর পাত্রীদের পরিবারের কোনো আপত্তি নেই তাই আমরা বিয়ের অনুমতি দিয়েছি।

তবে একসঙ্গে দুই নারীকে বিয়ে বিরল কোনো ঘটনা নয়। কোনো আদিবাসীদের মধ্যে এ ধরনের বিয়ে প্রচলিত আছে। তবে হিন্দু ম্যারেজ অ্যাক্টে এ ধরনের বিয়ে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর