,



কঠোর লকডাউনে ব্যাংক-পুঁজিবাজার কীভাবে চলবে জানা যাবে আজ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে আগামী ১ জুলাই থেকে কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। জরুরি পরিষেবা ছাড়া সবই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার প্রজ্ঞাপন জারি হবে। তবে পোষাক খাত ও রপ্তানিমূখী শিল্প কারখানা খোলা থাকতে পারে বলে জানা গেছে।

আমদানি-রপ্তানির স্বার্থে এবং রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধি স্বাভাবিক রাখতে সীমিত আকারে ব্যাংক খোলা রাখার দাবি জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, যেহেতু সরকার আগামী বৃহস্পতিবার থেকে কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে তাই প্রজ্ঞাপন না দেখে কিছু বলা যাচ্ছে না। প্রজ্ঞাপন দেখে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। শোনা যাচ্ছে পোশাক কারখানা বা রপ্তানিমুখী শিল্প কলকারখানা খোলা। সে অর্থে অর্থনীতি সচল রাখতে ব্যাংক খোলা রাখা দরকার। সরকারের প্রজ্ঞাপনে ব্যাংক বন্ধের সিদ্ধান্ত আছে কিনা দেখতে হবে। যদি আর্থিক প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত থাকে, তবে লেনদেনের সময় কত ঘণ্টা হবে, সব শাখা খোলা হবে কিনা সেটি ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হবে।

এদিকে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, কঠোর লকডাউনেও পুঁজিবাজার চালু রাখার পক্ষে আমি। যেহেতু ব্যাংক লেনদেনের সাথে পুঁজিবাজারের লেনদেন জড়িত। তাই আমরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনার দিকে তাকিয়ে আছি। যদি ব্যাংক খোলা থাকে, তবে পুঁজিবাজারের লেনদেন চলবে।

কত ঘণ্টা লেনদেন চলবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ব্যাংকের লেনদেন কত ঘণ্টা হবে তার প্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর