,



পরিবার নিয়ে দেশ ছাড়তে পারেন আফগান প্রেসিডেন্ট?

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি স্ত্রী-পরিবার নিয়ে দেশ ছেড়ে পালাতে পারেন বলে চারিদিকে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যেই তালেবান আগ্রাসন নিয়ে দেশবাসীর মুখোমুখি হলেন তিনি। নিজের ইস্তফা বা দেশ ছেড়ে চলে যাওয়া নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি। তবে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আফগানিস্তানে শান্তি এবং স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনাই প্রধান লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন তিনি।
শনিবার (১৪ আগস্ট) দুপুর পর্যন্ত পাওয়া শেষ খবর অনুযায়ী, দেশের রাজধানী কাবুল থেকে ১১ কিলোমিটারেরও কম দূরত্বে অবস্থান করছে তালেবান যোদ্ধারা।
উত্তর দিক থেকে কাবুলে ঢোকার প্রবেশপথ হিসেবে চিহ্নিত যে মাজার-ই-শরিফ শহর, তা দখল করে নিয়েছে তালিবান। দক্ষিণের লোগার প্রদেশেরও দখল নিয়েছে তারা।
এমন পরিস্থিতিতে সরকারের ভূমিকা নিয়ে যখন প্রশ্ন তুলছে বিরোধীরা, সেই সময়ই শনিবার দুপুরে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন ঘানি। তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট হিসেবে আপনাদের কথা দিচ্ছি, কিছুতেই দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট হতে দেবো না আমি। হিংসার কবলে যেতে দেব না দেশকে। মানুষ যাতে ভিটেমাটি ছাড়া না হন, তা নিশ্চিত করেই ছাড়বো। আফগান নাগরিকদের ওপর যুদ্ধ এবং হত্যালীলা নেমে আসতে দেবো না। গত ২০ বছর ধরে একটু একটু করে যা গড়ে তুলেছি আমরা, কিছু ধ্বংস হতে দেবো না।’
আফগানিস্তানের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির অভিযোগ, শুক্রবার রাতে আমেরিকার বিদেশ সচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এবং সে দেশের প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিনের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে গনির। ইস্তফা দেওয়ার জন্য তার উপর চাপ বাড়াচ্ছে আমেরিকা, যাতে তালেবানের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।
তাই পরিবার নিয়ে অন্যত্র পালানোর আগে গনি মুখরক্ষা করছেন বলে অভিযোগ বিরোধীদের। আফগান সরকার যদিও তা খারিজ করে দিয়েছে।
কিন্তু তালেবানের মোকাবিলায় পরবর্তী পদক্ষেপ কী, তা নিয়ে যে অস্বচ্ছতা রয়েছে তা সরকারের অন্দরেই অনেকে মেনে নিচ্ছেন। তাতেই নিজেদের বিরোধীরা আরও জোর পেয়েছেন। তাদের মতে, গনির ইস্তফা এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

সূত্র : বিবিসি

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর