,



ভাল দিনের খোঁজে অন্তঃসত্ত্বা নুসরাত!

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ গর্ভাবস্থার একেবারে শেষ পর্যায়ে রয়েছেন নুসরাত জাহান। আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। সূত্র বলছে চলতি মাসেই মা হবেন নুসরাত। অন্তঃসত্ত্বা নুসরাতকে কতখানি নিজের কাছে আগলে রেখেছেন সহবাস সঙ্গী যশ, তার প্রমাণও কয়েকদিন আগে মিলেছে। সকলের চোখরাঙানিকে উপেক্ষা করেই বৃষ্টিভেজা দিনে টলিপাড়ার হবু মা নুসরাতের সঙ্গে রোম্যান্সে মজেছিলেন যশ দাশগুপ্ত। অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকার সঙ্গে চরম ঘনিষ্ঠতার মুহূর্ত নিমেষে ভাইরাল হয়েছিল নেটদুনিয়ায়।

সম্প্রতি নুসরাতের সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এলো সানডে আউটিংয়ের ছবি। কিন্তু যশকে সেই ছবিতে দেখা না গেলেও তার মন প্রাণ জুড়ে যে যশ রয়েছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। যশ ও নুসরাতের ইনস্টাগ্রামে উঁকি মারলেই বোঝা যাচ্ছে রবিবারের বিকালটা পুরো নিজেদের মতো করে সময় কাটিয়েছেন টলিপাড়ার লাভবার্ডস। কোনও এক রেস্তোরাঁয় সময় কাটিয়েছেন তারা।

নুসরাত নিজের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ভাল দিনের খোঁজে’, সঙ্গে ‘নিউ রোল’, ‘নিউ বিগিনিং’, ‘বেস্ট ডেজ’-এর মতো শব্দগুলো হ্যাশট্যাগ হিসেবে ব্যবহার করেছেন হবু মা।

এদিন হালকা আকাশী রঙা প্রিন্টেট আউডফিটে পাওয়া গেল নুসরাতকে। মাতৃত্বাকালীন আভা ঝরে পড়ছে নুসরাতের চোখে-মুখে। কাজল রঙানো চোখ, ঠোঁটে লিপস্টিক, মুখে হালকা মেক-আপ, টেনে টপ নট করে চুল বেঁধে রেখেছেন নুসরাত। তার লুকে সবচেয়ে বেশি নজড়কাড়া তার গোল রিং-এর আকারের সবুজ-হলুদ দুল।

অন্য দিকে ঠিক একই সময়ে তিনটি ছবি পোস্ট করেছেন যশ দাশগুপ্ত। শুরু থেকেই জল্পনা, নুসরাতের আগত সন্তানের বাবা যশ। তাই সন্তানের জন্মের দিক কয়েক আগে তাঁর দিকে নজর নেটাগরিকদের। দু’জনের ছবি দেখে মনে হচ্ছে, তারা সম্ভবত একই জায়গায় রয়েছেন। কিন্তু প্রতি বারের মতো এ বারও আলাদা আলাদা ছবি পোস্ট করেছেন। যশ তাঁর ছবিগুলির নীচে লিখেছেন, ‘রবিবারের খুশির আমেজ’।

নুসরাত যে নিজের মাতৃত্বটাকে চুটিয়ে উপভোগ করছেন তা কিন্তু বেশ স্পষ্ট। মা হওয়ার দিন যত এগিয়ে আসছে, তত যেন সুন্দর হয়ে উঠছেন নুসরাত জাহান। এমনটাই মনে করেন নুসরাতের ভক্তরাও। নুসরাতের সন্তানের বাবা কে, তা নিয়ে সকলেরই কৌতূহল রয়েছে। কারণ সন্তানের বাবার পরিচয় নিয়ে প্রকাশ্যে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেননি তিনি। এ নিতান্তই তার ব্যক্তিগত বিষয়। সে কারণেই হয়তো এ নিয়ে প্রকাশ্যে মন্তব্য করার প্রয়োজন অনুভব করেননি বর্তমান সময়ে অনেকেই সিঙ্গেল মাদার হিসেবে নিজের জায়গা প্রমাণ করেছেন। হয়তো নুসরাতও তেমনটাও করতে পারেন বলে অভিমত একাংশের। তবে পুরো বিষয়টি নিয়ে স্পিকটি নন নুসরাত জাহান।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর