,



এবার বান্দরবানে নোবেলের উদ্ভট কান্ড, মাঝরাতে হোটেলে পুলিশ

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ বুধবার (২৫ আগস্ট) রাতে বান্দরবানে ঘুরতে গিয়েছেন বিতর্কিত সঙ্গীতশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেল। তার সফরসঙ্গী হয়েছেন এক নারী। ওই নারীর সঙ্গে রুমা বাস স্টেশন এলাকার গার্ডেন সিটি নামের একটি আবাসিক হোটেলে উঠেছেন তিনি। হোটেলে ওই নারীকে নিজের স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেন নোবেল। বান্দরবানে গিয়ে আবারো বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন তিনি। তার উদ্ভট কাণ্ডে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

একটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যায়, বান্দরবানে যাওয়ার পরদিন (২৬ আগস্ট) সেখানকার বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখেন তারা। এ সময় নোবেলকে প্রকাশ্যে নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করতে দেখে স্থানীয়রা। এলাকাবাসীর সঙ্গে উদ্ভট আচরণও করেন তিনি। এতে এলাকার মানুষ তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

এরপর সন্ধ্যায় গার্ডেন সিটি নামের সেই হোটেলে ফিরে আসে নোবেল। মধ্যরাতে হোটেলের অভ্যর্থনা কক্ষে এসে মদ্যপ অবস্থায় চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন তিনি। তাকে শান্ত করতে গেলে হোটেল কর্তৃপক্ষ চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এমন পরিস্থিতিতে হোটেলের অন্য এক অতিথি তাকে থামানোর চেষ্টা করলে নোবেল তাকে লাঞ্ছিত করেন। অতঃপর কোন উপায় না পেয়ে রাত ৩টা নাগাদ গার্ডেন সিটি আবাসিক হোটেলের মালিক মো. জাফর বাধ্য হয়ে পুলিশকে বিষয়টি অবগত করেন। পুলিশ এসে নোবেলকে শান্ত করার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হন। পরবর্তীতে নিজ থেকেই ভোরবেলা রুমে চলে যান তিনি।

গার্ডেন সিটি আবাসিক হোটেলের মালিক মো. জাফর জানান, একজন সংগীতশিল্পী হিসেবে নোবেলের আচরণ খুবই অসভ্য। রুম ভাড়া নেওয়ার সময় তার সঙ্গে থাকা নারীকে প্রথমে স্ত্রী ও পরে বোন বলে পরিচয় দেন। নেশা করে হোটেলে উদ্ভট সব কাণ্ড ঘটিয়েছে। এমনকি অন্য অতিথির গায়ে পর্যন্ত হাত তুলেছেন। এমন পরিস্থিতিতে পুলিশকে জানাই। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসনের নেজারত-ডেপুটি-কালেক্টর জাকির হোসাইনকে বিষয়টি অবহিত করি।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, নোবেলের বিষয়ে আমরা হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। এরপর বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। বেআইনি কিছু করলে অবশ্যই তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

উল্লেখ্য, বুধবার (২৫ আগস্ট) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ছবি প্রকাশ করেন নোবেল। এতে দেখা যাচ্ছে- দুর্গম পার্বত্য অঞ্চলের নাফাকুম জলপ্রপাতের পাশে এক নারীর সঙ্গে বসে রয়েছেন নোবেল। তিনি ঠিক কী করছিলেন, সেটি একেবারে স্পষ্ট না হলেও ‘গাঁজার কলকি’ টানছেন বলেই মনে করছেন অনেকেই! বিষটি নিয়ে নোবেলের স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল মাহমুদও তার ফেসবুকে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তিনি নোবেলের ফেসবুকের ওই ছবিটিকে ইঙ্গিত করে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

২০১৯ সালে কলকাতার বহুল আলোচিত গানের রিয়েলিটি শো সা-রে-গা-মা-পাতে অংশ নিয়ে তুমুল আলোড়ন তৈরি করেন নোবেল। পশ্চিমবঙ্গের অনেক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে তিনি ফাইনালেও ওঠেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে নোবেলের একের পর এক বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে তাকে ঘিরে সমালোচনার ঝড় ওঠে। বিভিন্ন সময় উদ্ভট মন্তব্যের জেরে অসংখ্য মানুষের অপছন্দের পাত্র হয়ে উঠেছেন নোবেল।

 

 

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর