,



শাকিব-অপুর সংসার, মুখ খুললেন বুবলী

ঢাকাই সিনেমারে আলোচিত চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। ব্যক্তিগত জীবনে শাকিব খানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এ সংসার আলো করে জন্ম নিয়েছে একটি পুত্রসন্তান। এ খবর প্রকাশ্যে আসার পর বুবলী বলেছিলেন— সংবাদসম্মেলন করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন। তবে তা আর বাস্তবায়ন করেননি এই নায়িকা।

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে রোববার (৪ ডিসেম্বর) রাতে দীর্ঘ একটি ভিডিও বার্তায় শাকিব-অপুর সংসার এবং শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্কের নানা সমীকরণ নিয়ে কথা বললেন বুবলী। কথার শুরুতে এ অভিনেত্রী জানান, তিনি কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ করবেন না। বরং মানুষের কিছু প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

বুবলী বলেন—‘২০১৬ সালে আমি যখন চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করি। তখন শাকিব খান (আমার স্বামী, আমার সন্তানের বাবা) মেন্টর হিসেবে গাইড করতেন। ওনার কারণে ফিল্মে আসা, ওনার মাধ্যমে আমার ফিল্মে কাজ করার সুযোগ হয়। ওই সময়ে শাকিব খান কারো সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন, এ খবর আমি যেমন জানতাম না, তেমনি সাধারণ মানুষও জানতেন না। বরং খবরে দেখেছি, তিনি বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছেন। ২০১৭ সালে তার বিয়ে-সন্তানের বিষয়গুলো সবার মতো আমিও জানতে পারি।’

শাকিবের সঙ্গে সিনেমায় কাজ শুরু করার পরই পরস্পরের মাঝে সম্পর্ক তৈরি হয়েছে বিষয়টি তা নয়। এ বিষয়ে বুবলী বলেন, ‘শাকিব খানের সঙ্গে প্রথম সিনেমা করতে গিয়ে ভালো লাগা তৈরি হয়েছে তা নয়। সময়ের সঙ্গে আস্তে আস্তে আমাদের মাঝে ভালো লাগা তৈরি হয়। শুরুতে খুব বন্ধুত্ব, প্রেম— এরকম কিছু ছিল না। কারণ আমরা সবাই পেশাদারিত্বের জায়গাটি ঠিক রেখে কাজ করছিলাম। কিন্তু উনি চাচ্ছিলেন সেটল হতে। আমাকে উনি বলেওছিলেন, সেটল হতে চান।’

অপু বিশ্বাস মুঠোফোনে বুবলীর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছিলেন। তা উল্লেখ করে বুবলী বলেন, ‘উনি অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন। অপু বিশ্বাস আমার অনেক সিনিয়র। অনেক বছর ধরে উনি ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন। ওনার সঙ্গে সামনাসামনি কখনো দেখা হয়নি। ২০১৭ সালে লাইভ অনুষ্ঠানে আসার আগে উনি (অপু বিশ্বাস) ফোন করে আমার সঙ্গে অনেক খারাপ ব্যবহার করেছিলেন। আমি জানতামও না উনি আমার সঙ্গে কেন এমনটা করছিলেন। কারণ উনি আমাকে কিছু জিজ্ঞাসাও করেননি, কোনো কিছু ক্রস চেকও করেননি। কিন্তু আমার সঙ্গে খুব বাজে ব্যবহার করেছিলেন। ওই মুহূর্তের জন্য আমি মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না। পরবর্তীতে কষ্ট থেকে এ বিষয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছিলাম।’

‘আমি যদি জানতাম শাকিব খান-অপু বিশ্বাস এমন জটিল সময় পার করছেন, তাহলে আমি এখানে কখনই যুক্ত হতাম না। সবকিছু জেনেশুনে কোনো ধরনের সমস্যা তৈরি করার মানসিকতা আমার নেই। যারা আমাকে কাছ থেকে দেখেছেন তারা বিষয়টি জানেন।’ বলেন বুবলী।

অনেকবার অভিযোগ উঠেছে বুবলীর কারণে শাকিব-অপুর সংসার ভেঙেছে। এ বিষয়টি পরিষ্কার করে বুবলী বলেন, ‘‘আমি শাকিব খানকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম। উনি অনেক আবেগপ্রবণ হয়ে বলেছিলেন, ‘আমি অনেক দিন ধরেই এ বিষয়ে তোমার সঙ্গে কথা বলতে চাচ্ছিলাম। আমার কাছে মনে হয়েছে এখানে তুমি সম্পৃক্ত নও।’ কিন্তু পরবর্তীতে আমাকেই দোষারোপ করা হলো। আমার কারণে নাকি শাকিব-অপুর সংসার ভেঙেছে! এটা স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমার কারণে কারো সংসার ভাঙেনি।’’

কিছু প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বুবলী বলেন, ‘অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় অপু বিশ্বাস যখন গোপনে আড়ালে চলে যান তখন আমি ছিলাম না। শুনেছি, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় অপু বিশ্বাস অনেক কিছু খেতে চেয়েছেন। কিন্তু শাকিব খানের পরিবার থেকে নাকি দেওয়া হয়নি। ওই সময়েও তো আমি ছিলাম না। তারপরও আমাকে কেন দোষারোপ করা হয়? ফাইনালি শাকিব-অপুর বিয়েবিচ্ছেদ ঘটে। এটা তো তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। তারা দুজনেই ম্যাচিউর মানুষ। কারো প্ররোচণায় এই বিচ্ছেদ ঘটেছে— এটা কি সম্ভব? আমি মনে করি সম্ভব না! বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত যদি তাদের দুজনের না থাকে তবে বাইরে থেকে কেউ এসে এটা করাতে পারে না। একজন মানুষ যদি একটা সম্পর্কে থাকার পর আরেকটি বিয়ে করে; যাকে বিয়ে করলেন এটা কি তার ভুল?’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর