নানা গুণের সূর্যমুখী

আমরা অনেকেই রান্নায় সর্ষের তেল ব্যবহার করে থাকি। তবে লুচি ভাজার জন্য সূর্যমুখীর তেল বেছে নিই। সূর্যমুখী ফুলের বীজও খেয়ে থাকেন স্বাস্থ্য সচেতন মানুষরা। তবে সূর্যমুখীর তেল দিয়ে ত্বকের বহুবিধ সমস্যা মিটানো সম্ভব তা আমরা অনেকেই জানিনা। রান্নার জন্য সূর্যমুখীর তেল কিন্তু ত্বকে মাখলে হীতে বিপরীত হতে পারে। ত্বকে মাখার জন্য সূর্যমুখীর তেল বাজারে রয়েছে।

ত্বকের যত্নে সূর্যমুখী তেলের উপকারিতা

১) সূর্যমুখী ফুলে আছে লিনোলাইক অ্যাসিড, যা ত্বকে মেলানিন উৎপাদন কমায়। এছাড়া রোদে পোড়া ত্বক থেকে ট্যান দূর করে এই সূর্যমুখীর তেল।

২) শুষ্ক ত্বকের মৃত কোষ হলো প্রধান সমস্যা। এই তেলে থাকা ভিটামিন ই ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রেখে মৃত কোষ সরিয়ে ফেলে। এবং ত্বককে শুষ্ক হবার হাত থেকে রক্ষা করে।

৩) ত্বকের যাবতীয় সমস্যা যেমন ব্রণ, র‍্যাশ, ব্ল্যাকহেডস, হোয়াইটহেডস, বলিরেখার প্রবণতা কমাতে সাহায্য করে।

৪) সূর্যমুখীর তেলের লিনোলাইক অ্যাসিড খুব অল্প সময়ে ত্বকের গভীর ক্ষত থাকলে তা সারিয়ে তোলে।

৫) যাদের ত্বক স্পর্শকাতর তারা ত্বকে কিছু লাগাতে ভয় পান। এক্ষেত্রে  সূর্যমুখীর তেল চোখ বন্ধ করে ব্যবহার করতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর