শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের প্রয়োজনেই ডিসি-ইউএনওদের গাড়ি দেওয়া হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ নির্বাচনের আগে জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের জন্য গাড়ি কেনার সিদ্ধান্ত নিয়ে বিভিন্ন মহলে নানা প্রশ্ন তৈরি হলেও নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের প্রয়োজনে এটিকে অপরিহার্য বলে উল্লেখ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনে আগের নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে রিটার্নিং অফিসার এবং সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের জন্য ২৬১টি গাড়ি কেনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকার আগে গাড়ি কেনার বিষয়ে একটি নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল; কিন্তু সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রয়োজনে আগের সেই নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। বুধবার পারচেজ কমিটিতে নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার এবং সহকারী রিটার্নিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের জন্য এসব গাড়ি কেনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার জন্য তাদের এসব গাড়ি দেওয়া হচ্ছে। এখানে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মাগুরায় নবনির্মিত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন উদ্বোধন শেষে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

নির্বাচনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা দাবির বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আমলের সব নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ ছিল এবং রিগিং হতো বলেই কেয়ারটেকার সরকার ব্যবস্থার প্রচলন করা হয়েছিল। এটি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় সর্বোচ্চ আদালত অবৈধ ঘোষণা করেছেন। বিধায় এখন সংবিধানে কেয়ারটেকার গভর্মেন্টের কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই সংবিধানে যেভাবে আছে সেভাবেই নির্বাচন হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার চায় নির্বাচনে সব দল অংশগ্রহণ করুক। আর সংবিধান মেনেই তাদের অংশগ্রহণ করতে হবে। কোনো দল নির্বাচনে আসবে কিনা সেটি তারাই ঠিক করবে।

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হলো কিনা সেটি নির্ধারণ করবেন জনগণ। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে যখন জনগণ ভোট দেবেন। আমার বিশ্বাস আগামী নির্বাচনে জনগণ ভোট দেবেন।

মাগুরায় জেলা জজ আদালত সীমানা সংলগ্ন প্রায় ৪৩ কোটি ৯৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২ তলা ফাউন্ডেশনবিশিষ্ট নতুন আদালত ভবন প্রাঙ্গণে উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ারের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ডক্টর বিরেন শিকদার, সারা দেশে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন নির্মাণ প্রকল্পের প্রধান সমন্বয়ক বিকাশ কুমার সাহা, মাগুরার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ অমিত কুমার দে, মাগুরা জেলা প্রশাসক আবু নাসের বেগ, পুলিশ সুপার মশিউদ্দৌলা রেজা, মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ ফ ম আবদুল ফাত্তাহ, সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুমার কুণ্ডু, গণপূর্ত বিভাগের খুলনা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী শাহজালাল মজুমদার, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম বাবলু প্রমুখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে দেশে আইনের সুশাসন প্রতিষ্ঠা হয়েছে। এটি ধরে রাখতে সবাইকে কাজ করে যেতে হবে।

মন্ত্রী পরে মাগুরা সদর উপজেলার কাটাখালি স্কুল প্রাঙ্গণে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর