মিয়ান আরেফির বিষয়ে ‘কনসুলার অ্যাকসেস’ চাইলো মার্কিন দূতাবাস

বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয়ে আটক মিঞাঁ জাহেদুল ইসলাম আরেফি ওরফে মিয়ান আরেফির বিষয়ে কনসুলার অ্যাকসেস (নিজেদের নাগরিককে আইনি সহায়তা দেয়ার জন্য কথা বলার সুযোগ) চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় অর্ধশতাধিক মিশন প্রধান ও প্রতিনিধিদের ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। এসময় প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমও উপস্থিত ছিলেন।

সহিসংতার ভিডিও ও ছবি ঢাকাস্থ কূটনীতিকদের দেখানো হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

তবে এসময় কূটনীতিকদের কোনো প্রশ্ন ছিলো না বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে অনেক দেশই আগ বাড়িয়ে বিবৃতি দেয়, যা সমীচীন নয়।

এদিন কূটনীতিকদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, বিএনপির রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর চালানো হামলা দুঃখজনক।

মন্ত্রী বলেন, নির্বাচন বানচাল করার জন্যই বিএনপি সহিংসতা করেছে। এসময় তিনি জনগণের আস্থা অর্জন করে বিএনপিকে নির্বাচনে আসার আহ্বান জানান।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সচিব মাসুদ বিন মোমেন ও ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান।

এসময় কূটনীতিকদের আইনমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী হবে। সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতে সরকারের প্রতিশ্রুতি কূটনীতিকদের ফের স্মরণ করিয়ে দেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর