মাশরাফির মতো লিডার ড্রেসিংরুমে থাকা আমাদের জন্য বড় পাওয়া

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আগে একদিনও অনুশীলন করেননি মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রস্তুতিহীন টুর্নামেন্ট শুরু করা মাশরাফিকে খেলানো নিয়ে তৈরি হয়েছে তুমুল সমালোচনা। তারই সাবেক জাতীয় দল সতীর্থ মোহাম্মদ আশরাফুল বলেছিলেন, অন্যদের জায়গা নষ্ট করছেন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ( বিসিবি) পরিচালক আকরাম খান বলেছিলেন, মাশরাফির মতো আনফিট ক্রিকেটার খেলায় নষ্ট হচ্ছে বিপিএলের মান। অন্যদিকে মাশরাফি নিজেও মানেন বিপিএলে তার খেলাটা আদর্শ না।

তবুও কোন এক অজানা কারণে মাশরাফি খেলছেন বিপিএলের ১০ম আসরে। তবে এমন কোনো কিছুই ভাবছেন না দলটির তরুণ পেসার তানজিম সাকিব। তার কথা, পুরোটাই টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়।

বিপিএলে এখন পর্যন্ত দুই ম্যাচ খেলেছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। দুই ম্যাচেই একাদশে ছিলেন মাশরাফি। প্রথম ম্যাচে ২.৩ ওভার বল করে ২৫ রানে নেন এক উইকেট। প্রস্তুতিহীনভাবে ম্যাচে নামায় প্রথমদিন শর্ট রান-আপে বোলিং করেন। দ্বিতীয় ম্যাচে একটিবারের জন্য বল হাতে দেখা যায়নি তাকে। তবে ব্যাট হাতে তিন নম্বরে নামেন। টপ অর্ডারে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে। এরপরেই তার কার্যকারিতা নিয়ে ওঠে প্রশ্ন।

ওই ম্যাচের পর মাশরাফি জানান, তার খেলা আদর্শ হচ্ছে না। কী কারণে খেলছেন সেটাও স্পষ্ট করা সম্ভব নয় বলেও ইঙ্গিত দেন। তবে আগে থেকেই কানাঘুষা ছিল পারফর্ম করতে না পারলেও মাশরাফিকে যেকোন মূল্যে একাদশে চান দলের মালিক পক্ষ।

মাশরাফির দলে থাকার বিষয় পুরোটা টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয় বলে জানান তানজিম সাকিব। তিনি বলেন, ‘গত বছর মাশরাফি ভাই পুরো বিপিএল আমাদের লিড করেছে। আমরা ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিলাম। লিডার হিসেবে বাংলাদেশের বেস্ট লিডার। উনি যে খেলতেছে এটা পুরোটাই টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়।’

তানজিম সাকিবের ভাষ্যমতে দলের সঙ্গে মাশরাফির থাকাটা দলের জন্য অনুপ্রেরণার। তরুণ এই পেসার বলেন, ‘মাশরাফি ভাই ফাইটার এবং উনি লিডার। ওনার পায়ে অনেকগুলো সার্জারি হয়েছে তারপরও উনি দেশের জন্য খেলে গেছে। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় ইনস্পায়ারেশন।’

‘উনার মতো লিডার যদি ড্রেসিংরুমে থাকে এটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া’ -আরও যোগ করেন তানজীম। আগামীকাল সন্ধ্যায় সিলেটে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে সিলেট।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর