ফেনীতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ২৩ বাংলাদেশিকে আটক করেছে বিএসএফ

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে চিনি পাচারের সময় ২৩ বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাত আনুমানিক ২টার দিকে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে চিনি পাচারের সময় ফেনীর পূর্ব ছাগলনাইয়া ৯৯ নম্বর পিলার এলাকায় তাদের আটক করা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, সোমবার রাতে ভারতের সমরগঞ্জ ও বাংলাদেশের পূর্ব ছাগলনাইয়া এলাকা মধ্যবর্তী সীমান্ত দিয়ে চিনির বস্তা বহনের কাজ করছিল শতাধিক বাংলাদেশি শ্রমিক। এসময় বিএসএফ তাদের ধাওয়া করলে অনেকে পালিয়ে বাঁচতে পারলেও ২৩জন শ্রমিককে আটক করে বিএসএফ।

তারা হলেন- পূর্ব ছাগলনাইয়া গ্রামের সাইমুম হোসেন (১৯), রাইসুল ইসলাম (১৯), সামিন (৪০), হারুন (২৩), লিটন (৩০), মাঈন উদ্দিন (২০), রাধানগর এলাকার মহসিন (২৫), কাজী রিপন (৪০), তাজুল ইসলাম সাকিল (২২), হানিফ (৩৫), আবুল হাসান (৩০), ইমরান (২২), রুবেল (২৮), জাফর ইমাম মজুমদার (৪০), মো. ওবায়দুল হক (৪৪), জামাল উদ্দিন (৪০), আরিফ হোসেন (২৪), করিম (২০), ছাগলনাইয়া এলাকার মটুয়া এলাকার খোরশেদ (৩৮), আজাদ হোসেন (২৫), মাহিম (২৫), হারুন (৩২) ও ইমাম হোসেন (২২)।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, গতকাল রাতে বিএসএফ’র হাতে ২৩ জন বাংলাদেশি আটক হয়েছে। আমরা বিজিবিকে জানিয়েছি। বিজিবি বলেছে জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দিতে। আমরা ২৩ জনের নামের তালিকা জমা দিয়েছি।

ফেনীর বিজিবি-৪ কোম্পানি কমান্ডার লে.কর্নেল শেখ মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা বলেন, বাংলাদেশি আটকের বিষয়টি জানতে পেরেছি। তবে এখনও কেউ পুলিশ কিংবা আমাদের কাছে অফিসিয়ালি অভিযোগ করেনি। আমরা খোঁজ খবর নিচ্ছি। যদি বিষয়টি প্রমাণিত হয় আমরা বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেব।

বিএসএফ’র হাতে আটক বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনতে পূর্ব ছাগলনাইয়া বিজিবি ক্যাম্পে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি জমা দিয়েছেন স্বজনরা।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর