পাকিস্তানে বিক্ষোভের ডাক পিটিআই’র

পাকিস্তানজুড়ে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে পাকিস্তান তেহেরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। জোট সরকার গঠনে পাকিস্তান পিপিলস পার্টির (পিপিপি) সঙ্গে আলোচনায় প্রস্তুত ইমরান খান এমন তথ্য জানানোর পরই বিক্ষোভের ডাক দেয়া হয়।বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এই কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার গহর খান। খবর জিও নিউজের।

জিও নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয় নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগে বিক্ষোভ পালনে জামায়াত-ই-ইসলামি, জমিয়ত উলেমা-ই-ইসলাম-ফজলসহ (জেইউআই-এফ) অন্যান্য দলগুলোকেও পাশে চান পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার গহর খান।

পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান বলেন, এবারের নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, আমরা আমাদের ম্যান্ডেট চুরি হতে দেব না।

প্রসঙ্গত, ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে জাতীয় পরিষদের ৯২টি আসনে জয় পেয়েছে পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। এ ছাড়া দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) পেয়েছে ৭৯টি ও বিলাওয়াল জারদারি ভুট্টোর পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) জয় পেয়েছে ৫৩টি আসনে। কোনো দলই সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় ব্যাপক রাজনৈতিক অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে দেশটিতে।

এদিকে সংবিধান অনুযায়ী, রাজনৈতিক দলগুলোকে আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি অথবা নির্বাচনের দিন থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে সরকার গঠন করতে হবে।

দেশটির জাতীয় পরিষদে মোট ৩৩৬টি আসন রয়েছে। যার মধ্যে ২৬৬টি আসনে সরাসরি ভোটের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করা হয়। আর জাতীয় পরিষদে ৭০টি সংরক্ষিত আসন রয়েছে। এর মধ্যে নারীদের ৬০টি এবং অমুসলিমদের জন্য ১০টি আসন সংরক্ষিত রয়েছে।

 

 

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর