ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন নিকি হ্যালি

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন লড়াই থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন জাতিসংঘের সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি। একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী সরে দাঁড়ানোয় ডোনাল্ড ট্রাম্পই এখন পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টি থেকে একমাত্র মনোনয়নপ্রত্যাশী।

বুধবার স্থানীয় সময় সকালে দক্ষিণ ক্যারোলিনার চার্লসটনে এক ভাষণে তাকে সমর্থন দেওয়ায় সমর্থকদের ধন্যবাদ জানান নিকি হ্যালি।

তিনি বলেন, এখন সময় এসেছে আমার প্রচারণা স্থগিত করার। এখন আমাদের দল ও দলের বাইরে যারা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করেন না, তাদের ভোট অর্জন করার বিষয়টি তার ওপর নির্ভর করছে। আমি আশা করি ট্রাম্প সেটি করতে পারবেন।

নিকি হ্যালি আরও বলেন, আমি তাকে (ট্রাম্পকে) অভিনন্দন জানাই। তার জন্য শুভ কামনা। যিনি আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হবেন, তার জন্যই শুভ কামনা। আমাদের দেশ এত মূল্যবান যে, আমাদের পার্থক্য আমাদের বিভক্ত করতে পারবে না।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেন নিকি হ্যালি। তার আগে তিনি সাউথ ক্যারোলাইনার গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ট্রাম্পকে একে একে সমর্থন জানিয়ে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন লড়াই থেকে সব প্রার্থী সরে গেলেও ‘সুপার টুয়েসডে’ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছিলেন নিকি।

মার্কিন রাজনীতিতে ‘সুপার টুয়েসডে’ হলো ৫ মার্চ। এদিন যুক্তরাষ্ট্রের ১৫ অঙ্গরাজ্য ও একটি অঞ্চলে প্রাইমারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তবে এই সুপার টুয়েসডেতেও তেমন সুবিধা করতে পারেননি নিকি। ‘সুপার টুয়েসডের ১৫ অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ১৪টিতে ট্রাম্পের কাছে হেরে যান তিনি। এর পরই এমন সিদ্ধান্ত নিলেন নিকি।

চলতি বছরের নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট বেছে নেবেন আমেরিকানরা। নির্বাচনি দৌড়ে নিকি সরে দাঁড়ানোয় রিপাবলিকান পার্টি থেকে ট্রাম্প মনোনয়ন পাচ্ছেন, এটা এখন প্রায় নিশ্চিত।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর