,



বনশ্রীতে নিহত গৃহকর্মীর মাথা ও গলায় আঘাতের চিহ্ন

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ  রাজধানীর বনশ্রীতে নিহত গৃহকর্মী লাইলি বেগমের ‘মাথা ও গলায় আঘাতের চিহ্ন’ পেয়েছে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের ফরেন্সিক বিভাগে এ ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।

বিকালে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ সাংবাদিকদের জানান, তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। গলায়ও কালো দাগ রয়েছে।
তিনি আরো জানান, ময়নাতদন্তের সময় তার গলার টিস্যু (ভিসেরা), স্পর্শকাতর স্থানের টিস্যু ও ডিএনএ নমুনা সংরক্ষণ করা হয়েছে। এসব আলামতের পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেলে জানা যাবে বিষয়টি হত্যা না আত্মহত্যা।

ময়নাতদন্তের আগে মৃত লাইলীর সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন খিলগাঁও থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুর রহমান। প্রতিবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, মৃত লাইলীর গলায় ডান দিকে অর্ধ চন্দ্রাকৃতি দাগ আছে। এ ছাড়া শরীরের কোথাও দাগ দেখা যায়নি।

মৃত নারীর দেবর জামাল হোসেন জানান, ময়নাতদন্তের পরে মৃত লাইলীর মরদেহ দেশের বাড়ি কুড়িগ্রামে নিয়ে যাবেন। সেখানেই দাফন করা হবে বলে পরিবার সূত্রে জানা যায়।

উল্লেখ্য, শুক্রবার সকালে দক্ষিণ বনশ্রীর সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা মাইনুদ্দিন মুন্সির বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষ থেকে গৃহকর্মী লাইলী বেগমের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বনশ্রীর আশপাশের বস্তির বাসিন্দারা ওই বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করে। এক পর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বেধে যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর