,



অসহায়দের সাহায্য করবেন হ্যাপি

টাকার অভাবে যারা মাদ্রাসার বই কিনতে পারছেন না বা বাচ্চাদের মাদ্রাসায় পড়াতে চাচ্ছেন কিন্তু টাকার জন্য পারছেন না অথবা দ্বীনি কেউ খুব কষ্টের মধ্য দিয়ে একবেলা খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছে তাদেরকে সাহায্য করার ঘোষণা দিয়েছেন অভিনয় থেকে অবসর নেয়া আলোচিত নায়িকা নাজনিন আক্তার হ্যাপি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি জানান, নিজের টাকা দিয়ে হ্যাপিস্ট শপ (Happiest Shop) নামে তিনি একটি অনলাইন খুলেছেন। এর উদ্দেশ্যে মানুষকে সাহায্য করা বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমি হঠাৎ করেই একটি অনলাইন শপ Happiest Shop চালু করেছি। যদিও নিজে হালালভাবে কিছু একটা করার পরিকল্পনা আগে থেকেই ছিল এবং এই কারনেই ছিল যাতে করে মানুষের সাহায্য করতে পারি ইনশাআল্লাহ।’

‘বাবা মায়ের কাছ থেকে সবসময় টাকা নিয়ে তো দেওয়াই যাই কিন্তু এতে তো আর নিজে কষ্ট করে দেওয়ার যে আত্বার শান্তি তা আর পাব না! তাই চিন্তা করেছি একবারেই কিছু টাকা নিয়ে সেটা দিয়ে কিছু একটা করে লাভের অংশ থেকে সাহায্য করার-যোগ করেন তিনি।

নিজের লাভের জন্য ব্যবসা শুরু করিনি, আমার প্রয়োজনও ছিল না আলহামদুলিল্লাহ! শুধু সাহায্য করার উদ্দ্যেশে ব্যবসায়ে এগিয়ে আসা, দাবি তার।

তিনি বলেন, ‘অনেক ভাই- বোন আছেন যারা অনেক কষ্ট করে মাদ্রাসায় পড়ছেন,মাদ্রাসার বই কিনতে পারছেন না, বা বাচ্চাদের মাদ্রাসায় পড়াতে চাচ্ছেন কিন্তু টাকার জন্য পারছেন না বা কোনো দ্বীনি ভাই- বোন খুব কষ্টের মধ্য দিয়ে একবেলা খেয়ে না খেয়ে বেচে আছেন, তারা আমাকে একটু কষ্ট করে জানান, ইনশাআল্লাহ আমি আমার সাধ্যের মধ্যে চেষ্টা করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাত্রতো শুরু করলাম, একটু সময় লাগতে পারে হয়তো। আসল সাহায্য তো আমার আল্লাহই করবেন, আমি শুধু উসিলা হতে চাই। আলহামদুলিল্লাহ! আল্লাহ না চাইলে আমার কোনো ক্ষমতাই ছিলনা এই ক্ষুদ্র উদ্যেগও নেওয়ার। আমার জন্য দোয়া করবেন এই নগন্য বান্দীর এই ক্ষুদ্র চেষ্টা যেন আল্লাহ কবুল করেন।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর