,



পঞ্চম শ্রেণীর বৃত্তি নিয়ে সংকটে সরকার

পঞ্চম শ্রেণীর সমাপনী পরীক্ষা উঠিয়ে দিলে কোন পদ্ধতিতে বৃত্তি দেয়া হবে তা নিয়ে সংকটে পড়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগে পঞ্চম শ্রেণীতে আলাদা করে বৃত্তি পরীক্ষা নেয়া হলেও প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী চালুর পর থেকে এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকেই বৃত্তি দেয়া হচ্ছে।
১৮ মে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সভায় প্রাথমিক শিক্ষা অষ্টম শ্রেণিতে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত হয়। এই সিদ্ধান্তের পর ৩১ মে পঞ্চম শ্রেণিতে সমাপনী পরীক্ষা না নেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরপরেই বৃত্তি দেয়া নিয়ে ধন্দে পরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতি-নির্ধারকরা।
এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার বলেন, পরীক্ষা উঠে গেলে বৃত্তির কী হবে অনেকেই জানতে চায়। আমি বলি, পরীক্ষাই নেই, সেখানে বৃত্তির কী আছে?
এদিকে পরীক্ষা বাতিলে সরকারের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত না হলেও চলতি বছর থেকেই এর বাস্তবায়ন চেয়েছেন অভিভাবকেরা।  বুধবার এ দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজধানীর কয়েকটি কলেজের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।
এ বছরই প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা তুলে দেয়া হবে কি না এমন প্রশ্নে ফিজার বলেন, এখনও সেই সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি মন্ত্রণালয়। যদিও এই পরীক্ষা তুলে দিতে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে সমাপনী পরীক্ষার এখনও অনেক দেরি আছে। আমরা চেষ্টা করছি। তা বন্ধ করতে।
উল্লেখ্য, গত বছর প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ মিলে ৮২ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেয়া হয়।
Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর