,



পয়মন্ত দাড়ি কাটবেন না মেসি

শতবার্ষিকী কোপা আমেরিকায় ভক্তদের দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক উপহার দিয়ে অভিযান শুরু করেছেন তিনি। দেশের জার্সিতে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার ৫৬ গোলের নজির স্পর্শ করতে গেলে দরকার আর মাত্র তিন গোলের! কিন্তু কোনো কিছুই যেন স্পর্শ করছে না লিওনেল মেসিকে। বার্সেলোনায় সতীর্থ লুইস সুয়ারেজের উরুগুয়ে ছিটকে গিয়েছে আসর থেকে। সেই ঘটনায় বিমর্ষ হয়ে পড়েছেন লিও। আর্জেন্তিনা অধিনায়ক বলেছেন, ‘‘সুয়ারেজের কথা ভেবেই আমার খুব খারাপ লাগছে। বার্সেলোনায় একসঙ্গে খেলি। সুয়ারেজ খুবই বড় মানের ফুটবলার। ফলে উরুগুয়ের বিদায় আমার কাছেও যন্ত্রণার।’’
শনিবার পানামার বিরুদ্ধে তার অসাধারণ ফুটবলের পর সমর্থকরা ফের ট্রফিজয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন। রোববার শিকাগোয় দলের সঙ্গে পুরোদমে প্র্যাক্টিসে নেমে পড়েন মেসি। মাঠ ছাড়ার সময় আর্জেন্তিনার খুদে ভক্তদের সঙ্গে সেলফিও তুলেছেন তিনি। মাঠ ছেড়ে বেরনোর সময় জনৈক সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেন, এবার কি দাড়িটা কেটে ফেলবেন? প্রশ্ন শুনে হেসে ফেলেন লিও। জবাব দেন, ‘‘ওই দাড়ি নিয়েই হ্যাটট্রিক পেয়েছি। এখন যদি সেটা কাটতে যাই, তবে সমর্থকরাই আমার দিকে রে রে করে তেড়ে আসবেন। নতুন এই স্টাইলটা উপভোগ করছি। ভাবছি ট্রফি জিতেই দাড়ি কাটব।’’
শনিবার পানামা ম্যাচের পরেই মেসি জানিয়েছিলেন, কোমরের চোট এখনও পুরো সারেনি। যদিও রোববার সেই প্রসঙ্গে মেসির গলায় শোনা গিয়েছে অন্য সুর। তিনি বলেছেন, ‘‘আসলে ক্লাব ফুটবল খেলার পর কোচ মার্তিনো মনে করেছিলেন যে, আমার বিশ্রাম নেয়া প্রয়োজন। কিন্তু আমার মনে হয়েছিল, মাঠের ধারে বসে থাকলে অলস হয়ে পড়ব! কিন্তু হন্ডুরাসের বিরুদ্ধে ম্যাচে যে এমন চোট লাগবে, তা ধারণার বাইরে ছিল।’’ যোগ করেছেন, ‘‘আমি কিন্তু ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছি। সেই কারণে এখন প্র্যাক্টিসে বাড়তি জোর দিচ্ছি। এতে নিজের ক্ষমতা যাচাই করা সহজ হয়।’’ আর্জেন্তিনা অধিনায়ক জানিয়েছেন, চিলের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে খেলার জন্য মরিয়া চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছিলেন। মেসির কথায়, ‘‘ম্যাচের দিন সকালেও হোটেলে ট্রেনিং করার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু কোমরে সমস্যা হওয়ায় ঝুঁকি নিতে চাইনি। কিন্তু আমার এই বিশ্বাস ছিল যে, গতবার কোপা আমেরিকা ফাইনালের পুনরাবৃত্তি হবে না। চিলেকে এবার আমরা হারাবই।’’
বার্সেলোনায় সতীর্থ সুয়ারেজের উরুগুয়ের বিদায় তাঁর কাছে এখনও এক বড় বিস্ময়। মেসি বলেছেন, ‘‘লাতিন আমেরিকার ফুটবলে গত আড়াই বছরে দারুণ উন্নতি হয়েছে উরুগুয়ে দলটার। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি, ওদের বিরুদ্ধে খেলার অর্থ নিজের শরীরের সমস্ত শক্তিকে নিঃশেষ করে ফেলা। ওদের বিদায় খুব হতাশাজনক।’’ আরো বলেছেন, ‘‘ব্রাজিল বিশ্বকাপেও উরুগুয়ে ভালো খেলে ছিটকে গিয়েছিল। সুয়ারেজের কথা ভেবে সত্যিই খুব খারাপ লাগছে।’’
বুধবার নিয়মরক্ষার ম্যাচ বলিভিয়ার বিরুদ্ধে। সেই ম্যাচেই কি বাতিস্তুতার ৫৬ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করার সম্ভাবনা রয়েছে? মেসি বলেছেন, ‘‘ব্যক্তিগত রেকর্ড নিয়ে আমি ভাবি না। দেশকে ট্রফি দেয়া আমার কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেই স্বপ্ন সার্থক করতে চাই।’
Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর