,



দরপতন অব্যাহত পুঁজিবাজারে

বিভিন্ন ইস্যুতে দীর্ঘদিন ধরে দরপতন অব্যাহত রয়েছে দেশের শেয়ারবাজারে। কারসাজি চক্রের তৎপরতা, তারল্য সংকটসহ নানা কারণে আস্থাহীনতায় রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। ফলে সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে দরপতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে।

এদিন উভয় বাজারে প্রধান সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিটের দর।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রস্তাবিত ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে কোনো ধরনের প্রণোদনা না থাকায় আস্থার অভাবে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারে। তবে এখনো স্টক হোল্ডারসহ বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাশা করছে বাজেট পাসের আগে সরকার শেয়ারবাজার উন্নয়নে সংশ্লিষ্টদের প্রস্তাবনাগুলো মেনে নেবে। তাহলে বাজারের প্রতি আস্থা বাড়বে বিনিয়োগকারীদের, চাঙ্গা হবে শেয়ারবাজার।

অন্যদিকে বাজেটে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর জোরালো দাবিগুলো কতটা বাস্তবায়ন হয়, তা দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।

এদিকে বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৩ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৪০৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া ডিএস৩০ সূচক দশমিক ৮৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৭৩৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। তবে ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৬৩ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট। যা আগের দিনের চেয়ে ৩২ কোটি টাকা বেশি। রোববার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩৩১ কোটি টাকা।

ডিএসইতে মোট ৩১৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৪৬টির এবং অপরিবর্তিত আছে ৬২টির শেয়ার দর।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ১৭ পয়েন্ট কমে ৮ হাজার ২৪৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া সিএসই৫০ সূচক ১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৪ পয়েন্টে, সিএসই৩০ সূচক ৬০ পয়েন্ট কমে ১২ হাজার ৪৯৯ পয়েন্টে, সিএএসপিআই সূচক ২৬ পয়েন্ট কমে ১৩ হাজার ৫৪৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। তবে সিএসআই শরিয়াহ সূচক দশমিক ৩৬ পয়েন্ট বেড়ে ৯৬৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট। এদিন সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৩৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিটের। এর মধ্যে বেড়েছে ৮৮টির, কমেছে ১১৫টির এবং অপরিবর্তিত আছে ৩৫টি কোম্পানির শেয়ার দর।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর