,



রাজনৈতি দিক থেকে বলাই যায়, শেখ হাসিনা একশতে একশ খালেদা জিয়া শূন্য।

বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটি উজ্জল নক্ষত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। বাবার মৃত্যুর পর আওয়ামী লীগের হাল ধরেছেন তিনি।এখনও আওয়ামী লীগকে শক্ত হাতে ধরে রেখেছেন শেখ হাসিনা।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবার মতোই বিজ্ঞ রাজনীতিবিদ তাতে কোন সন্দেহ নেই। সবদিক থেকে বাবার সঙ্গেই অনেকটা মিল রয়েছে তার। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে নাও থাকতে পারে?

বাংলাদেশের ইতিহাসে টানা দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় এসে দীর্ঘদিন দেশ পরিচালনার মুকুটটাও তার। সাম্প্রতিক দেশে যে জঙ্গি মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। সেই জঙ্গি দমনেও সফলতা দেখিয়েছেন তিনি। মোটকথা এখন বলা চলে, বাংলাদেশের রাজনীতি মানেই শেখ হাসিনা।

এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন রাজনীতি করেছেন। একাধিকার দেশ পরিচালনার দায়িত্বও পালন করেছেন। তার রাজনৈতিক জ্ঞান নিয়ে প্রায়ই নানান ধরনের কটু কথা শোনা যায়। তবে যারা এগুলো বলেন। তারা আসলে খুব খারাপ কিছু বলেন না। সত্যিই বলেন বলেই আমার মনে হয়।

বর্তমান দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট বিবেচনা করলে বিএনপির এখন কতগুলো রাজনৈতিক কাজ করা জরুরি। বিএনপির এখন উচিত দলের কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত গুছিয়ে ফেলা। দলীয় সকল কোন্দল ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা। প্রতিটি জেলায় খালেদা জিয়াসহ কেন্দ্রীয় নেতারা গিয়ে সভা সমাবেশ করা। বিএনপির যেসব ছোট বড় নেতা জেলে রয়েছে তাদেরকে জেল থেকে বের করে আনার উদ্যোগ নেয়া। তৃণমূল নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়ানো।আর যেহেতু আন্দোলন করে এই সরকারের বিরুদ্ধে তারা কিছুই করতে পারেনি। তাই আগামী জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেয়া। তবে এটা বিএনপি করছেন না।

তবে হ্যাঁ, এখন বিএনপির যা করা দরকার তা করছেন না। তবে এখন বিএনপির যেটা করার সেটা করছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

গণমাধ্যমের বদৌলতে জানতে পারলাম মঙ্গলবার(২৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দলের এমপি-মন্ত্রীদের যার যার এলাকায় যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন এবং আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার নিতে বলেছেন। এমনি সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে জনগণের কাছে যেতে বলেছেন। তাই রাজনৈতি দিক থেকে বলাই যায়, শেখ হাসিনা একশতে একশ। আর খালেদা জিয়া শূন্য।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর