,



মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কুরআনের সাথে থাকতে চান অভিনেতা মিশা সওদাগর

বাঙালী কণ্ঠ নিউজঃ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কুরআন প্রতিযোগিতার এক নম্বর কর্মী হিসেবে থাকতে চান অভিনেতা মিশা সওদাগর। ২৭ এপ্রিল (২ শনিবার) ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় আহলুল হুফফাজ ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এমনটিই জানিয়েছেন তিনি।

ত্রিশ পারা ও দশ পারা—এ দুই দলে মোট ১৫০ জন থেকে ৯ জন প্রতিযোগীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এর মধ্যে ত্রিশ পারা গ্রুপে চারজন এবং দশ পারা গ্রুপে পাঁচজনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এ সময় ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মোর্ত্তজার মেয়ে হুমাইরা মোর্ত্তজা কুরআন তিলাওয়াত করে উপস্থিত সবাইকে শোনায়।

কুরআনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারায় আল্লাহ’র কাছে শুকরিয়া জানিয়ে তিনি বলেন, আমি অন্য একটি পেশার মানুষ কিন্তু আল্লাহ’র ভয় সবসময় আমার অন্তরে কাজ করে। কারণ আমি মুসলিম। আমার ধর্ম ইসলাম। আমি এখানে বসে শুধু ভাবছিলাম। বাচ্চাগুলো যখন বাম দিকে ফোকাস দেয় সব ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশের সব বড় বড় আলেম, বিচারক, হাফেজ-ক্বারী মহোদয়রা বসে রয়েছেন। ওর ও নিশ্চয় ভেতর থেকে কম্পিটিশন আরম্ভ হয়ে যায়; কি জিজ্ঞেস করবেন, কি বলবেন। আপনার বিশ্বাস করেন আমার সব মিলিয়ি ৮-১০টি সূরা মুখস্ত। আমি ওগুলো বারবার রিপিট করছিলাম। আমাকে যদি বলা হয় আদৌ আমি এখানে বলতে পারব কিনা। আমার হার্টবিট বেড়ে যাচ্ছিল। আর এই বাচ্চাগুলো এখানে অকপটে সব বলে দিচ্ছিল।

তিনি আরও বলেন, আমার ৫৩ বছর বয়সে ২বার হজ্ব করেছি। অনেক রোজা রেখেছি, আমরা ঢাকাইয়া মানুষ জ্ঞানমতো কোনদিন রোজা ভাঙ্গিনি। অনেক তারাবি পড়েছি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা এমপি।

জাতীয় হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় মিডিয়া পার্টনার ছিল বাংলাদেশ প্রতিদিন, কালের কণ্ঠ, ডেইলি সান, নিউজ টোয়েন্টিফোর, রেডিও ক্যাপিটাল ও বাংলাভিশন। টাইটেল স্পন্সর ছিল বসুন্ধরা পেপার মিলস লিঃ পাওয়ার্ড বাই স্পন্সর ছিল গোল্ডমার্ক বিস্কুট, স্পন্সর ছিল গ্রিনলাইন পরিবহন, ইনফিনিটি মেগা মল, ইসলামী ব্যাংক, রয়েল কোচ ও প্রাণ ড্রিংকিং ওয়াটার। ইভেন্ট পার্টনার ছিল বাজ কমিউনিকেশন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর