,



চাঁদের মাটিতে মিলল ভারতের সেই বিক্রম ল্যান্ডার

 বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ খুঁজে পাওয়া গেছে বিক্রম ল্যান্ডার। এটি চাঁদের পৃষ্ঠে অবস্থান করছে বলে জানিয়েছেন ইসরো প্রধান কে শিভান। তিনি জানান, চন্দ্রযানটির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

এর আগে শনিবার মধ্যরাতে চন্দ্রযান-২-এর ল্যান্ডার যোগাযোগ বিচ্ছ্ন্ন হয়ে যায়। এর একদিন পরে রোববার এ খবর জানিয়েছেন তিনি। খবর এনডিটিভির।

ইসরো প্রধানের বক্তব্য উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, আমরা চাঁদের পৃষ্ঠে বিক্রম ল্যান্ডারের অবস্থান খুঁজে পেয়েছি, ল্যান্ডারের একটি থার্মাল ইমেজ সংগ্রহ করেছে অরবিটার। তবে এখন পর্যন্ত কোনো যোগাযোগ করা যায়নি। আমরা যোগাযোগের চেষ্টা করছি। খুব দ্রুতই যোগাযোগ করা যাবে। শনিবার ভোররাতে চাঁদে দক্ষিণ মেরুতে পৌঁছানোর কথা ছিল চন্দ্রযান-২-এর।

প্রায় ১ হাজার কোটি টাকার এ চন্দ্রযান-২-এর সাফল্যের সঙ্গে সঙ্গেই ইতিহাস রচনা হতো ভারতের। চাঁদের পৃষ্ঠে অবতরণ করলেই, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীনের পরেই ভারতের স্থান হতো। পাশাপাশি প্রথমবারেই চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সফলভাবে অবতরণের রেকর্ডও দখলে আসত ভারতের।

শনিবার এক বিবৃতিতে ইসরোর পক্ষ থেকে জানানো হয়, অপারেশনের একবারে শেষ পর্যায়ে ত্রুটিপূর্ণ কাজের অভিযোগ তুলেছে কে শিভান। সে সময় চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিলোমিটার দূরে ছিল চন্দ্রযান-২। তখনই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

তিনি বলেন, সঠিকভাবে অভিযানের শেষ পর্যায়টি করা হয়নি। এ সময়েই আমরা ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ হারাই, পরে আর যোগাযোগ করতে পারিনি।

জিএসএলভি মার্ক-৩ রকেটে চেপে ২২ জুলাই অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে যাত্রা শুরু করে চন্দ্রযান-২। এটি ইসরোর সবচেয়ে শক্তিশালী এবং দীর্ঘ রকেট। প্রথমে ১৫ জুলাই সেটি উৎক্ষেপণের কথা ছিল, তবে প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে, সেদিন উৎক্ষেপণের নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টারও কম সময়ের ব্যবধানে তা বাতিল করে দেয়া হয়।

২০ আগস্ট দুপুরে ১টা ১৫ মিনিটের সময় যানটিকে সফলভাবে চাঁদের কক্ষপথে তোলা হয়। ১টা ১৫ মিনিটের সময় সফলভাবে অরবিটার থেকে আলাদা হয়ে যায় ল্যান্ডার বিক্রম।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর