,



বোনের পরিচয় দিয়েও রেহাই পাইনি: কারিনা

কারিনা কাপুর খান এখন শুধু বলিউড স্টার পরিচয়ের মাঝে থেমে নেই। নবাব পরিবারের পুত্রবধূ তিনি। সেই জায়গা থেকে ইন্ডাস্ট্রিতে তার মর্যাদা খানিকটা হলেও বেড়েছে। বোনা কারিশমা কাপুরের সূত্রে বলিউডে কাজ শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত নিজের প্রতিভা দিয়েই টিকতে হয়েছে তাকে।

বলিউডের প্রথমসারির অভিনেত্রী তিনি। ‘কাভি খুশি কাভি গম’, ‘জাব উই মেট’, ‘ভিরে দি ওয়েডিং’সহ একের পর এক ব্লকবাস্টারে মূল চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। অনেকেই এখন কারিনার বোন বলেও চেনেন নব্বই দশকের হিট তারকা কারিশমা কাপুরকে। অথচ ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে বোনের পরিচয় দিয়েই নিজের জায়গাটা একটু বেশিই পোক্ত করতে হয়েছে তাকে। কিন্তু সব জায়গায় যে বোনের পরিচয় দিয়ে কাজ হয়েছে এমন না। এমন এক অভিজ্ঞতা সম্প্রতি শেয়ার করেন এই নবাব বধূ।

কারিনাকে একাধিকবার বকা খেতে হয়েছে বলিউডের জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার সরোজ খানের কাছে। এমনকি ‘এজেন্ট বিনোদের’ একটি গানের দৃশ্যের শুটিংয়ের সময় মাঝরাত পর্যন্ত সরোজ খান তাকে প্র্যাকটিস করান। শুধু তাই নয়, রাত ১টার সময় কারিনা কী করছেন, চোখ মোটা মোটা করে সেই কথাও জিজ্ঞেস করেন সরোজ খান।

বলিউডের জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফারের সেই রাতের বকাঝকার কথা এখনো মনে আছে বলে জানান কারিনা কাপুর খান। পাশাপাশি কারিনা বলেন, ‘রিফিউজি সিনেমার শুটিংয়ের সময় আমাকে বকেছিলেন সরোজ খান। কে আমাকে অভিনয়ের জন্য এনেছেন, তাও জিজ্ঞেস করেন তিনি। এমনকি বোনের পরিচয় দিয়েও রেহাই পাইনি। এরপর সরোজ খানের কাছে নাচ শিখেছিলাম।’

এদিকে কারিনা বর্তমানে তার পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটাচ্ছেন। সাধারণত এমনটাই দেখা যাচ্ছে সম্প্রতি। বিয়ের পর কারিনাকে সিনেমায় কম পাওয়া যাচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে তার ভক্তদের। কারিনা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘এমনটা হয়তো কোনো ক্ষেত্রে ঠিক। কিন্তু এটাই খুব স্বাভাবিক। ক্যারিয়ারের এই সময়ে এসে অনেকে সবসময় কাজের মধ্যে থাকতেও ইচ্ছে করে না। এছাড়া পরিবারকে সময় দেওয়াটাও আমার দায়িত্ব। সবকিছু মিলিয়ে কম সিনেমা করার অভিযোগ এলেও খারাপ লাগে না। আমাকে সবাই ঠিক আগের মতো করেই চাচ্ছেন এটাও আমার জন্য ভালোলাগার বিষয়। তবে আমি একদম যে কম সিনেমা করছি এমনটাও নয়। এ বছরের শেষেই নতুন সিনেমা দেখবেন সবাই।’

চলতি বছরে ২৭ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে কারিনার ‘গুড নিউজ’ সিনেমাটি। যেখানে তাকে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে দেখা যাবে। এছাড়া ২০২০ সালের শুরুতে মুক্তি পাবে কারিনার ‘ইংরেজি মিডিয়াম’ সিনেমাটি।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর