,



এলাকা না ছাড়লে কুর্দি গেরিলাদের মাথা গুঁড়িয়ে ফেলব: এরদোগান

বাঙ্গালী কণ্ঠ ডেস্কঃ  তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, ১২০ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতির পর কুর্দি গেরিলারা প্রস্তাবিত সেফজোন ছেড়ে চলে না গেলে তাদের মাথা গুঁড়িয়ে ফেলা হবে।

এর পাশাপাশি এরদোগান এ কথাও বলেছেন যে, নিরাপদ অঞ্চলে সিরিয়ার সেনাদের অবস্থানের ব্যাপারে রাশিয়ার সঙ্গে যদি তুরস্ক সমাধানে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়, তা হলে আঙ্কারা তার নিজের মতো করে ব্যবস্থা নেবে। খবর বিবিসি ও আনাদোলুর।

রাশিয়ার উপকূলীয় শহর সোচিতে আগামী মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে এরদোগানের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

মার্কিন মধ্যস্থতায় সই হওয়া ১২০ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতির মেয়াদ ওই দিনই শেষ হবে। ওই চুক্তিতে বলা হয়েছে, পাঁচ দিনের মধ্যে নিরাপদ অঞ্চল থেকে কুর্দি গেরিলাদের প্রত্যাহার করে নিতে হবে। কুর্দি গেরিলারা দীর্ঘদিন ধরে মার্কিন সরকার সমর্থন দিয়ে আসছেন।

আঙ্কারা চাইছে, সিরিয়ার ভেতরে সীমান্তবর্তী ৩২ কিলোমিটার এলাকায় নিরাপদ অঞ্চল গঠন করতে হবে, যেখানে ২০ লাখ সিরীয় উদ্বাস্তু পুনর্বাসন করা যায়।

তুরস্কের মধ্যাঞ্চলীয় কাইসের শহরে এক অনুষ্ঠানে শনিবার এরদোগান আরও বলেন, যেসব এলাকা নিয়ে নিরাপদ অঞ্চল গঠন করার কথা তার বেশ কিছু এলাকায় রুশ তত্ত্বাবধানে সিরিয়ার সেনারা অবস্থান করছেন।

এ বিষয়টি নিয়ে তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে আলোচনা করবেন; তাতে সমাধান বের না হলে আঙ্কারা নিজের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করবে। তবে কী পরিকল্পনা তুরস্ক বাস্তবায়ন করবে তা তিনি পরিষ্কার করে বলেননি।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর