,



নারী ও মাদকের আখড়া ছিল সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী সুবর্ণার ফ্ল্যাট

ইয়াবাসহ আটক সুবর্ণা রুপার ফ্ল্যাটে ছিলো ভিন্ন ব্যবসা। মূলত শিল্পী পরিচয়ের আড়ালে নারী ও মাদকের আখড়া ছিলো তার ফ্ল্যাট। সূর্য অস্তের পরপরই তার বাসাতেই আয়োজন করা হতো পার্টির। যেখানে অংশ নিতেন সরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, প্রবাসীসহ প্রভাবশালী অনেকে। গভীর রাত পর্যন্ত চলা সেই গান করতেন সুবর্ণা রুপাসহ অনেকে। এই পার্টিতেই নিরাপদে ইয়াবা সেবন করতেন অতিথিরা। আর তাদের মনোরঞ্জনের জন্য থাকতো একঝাঁক সুন্দরী। গানে, মাদকে বুঁদ হয়ে স্বল্পবসনা তরুণীদের সঙ্গে নাচ করতেন পার্টিতে অংশগ্রহণকারীরা।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়া এলাকায় তার বাসা থেকে শতাধিক পিস ইয়াবাসহ সুবর্ণা রুপাকে আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্যরা। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন তারা।

খিলখাঁওয়ের সুবর্ণা রুপার বাসা থেকে রুবেল নামের এক যুবককেও আটক করা হয়। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, রুবেলকে প্রথমে সুবর্ণা রুপা ভাই পরিচয় দিলেও এক পর্যায়ে জানিয়েছেন, পৈত্রিক নিবাস নোয়াখালীর সেনবাগের ছাতাপাইয়া এলাকার সম্পর্কে রুবেল তার ভাই হয়। ইয়াবা ও নারীদের খদ্দের সংগ্রহের কাজ করতেন এই রুবেল।

সুবর্ণা রুপা জানিয়েছেন তার স্বামী রেজাউল করিম রেজা থাকেন সৌদি আরবে। তাদের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এক ছেলে ও স্কুল পড়ুয়া এক মেয়ে রয়েছে। দুই সন্তানই থাকেন কক্সবাজারে। কক্সবাজারের বাহারছড়ায় সুবর্ণা রুপার শ্বশুরবাড়ি।

প্রতিবেশীরা জানান, ছেলে-মেয়ে খিলগাঁওয়ের ওই বাসায় তেমন আসতো না। মাঝে-মধ্যে এলে তখন ওই বাসায় কোনো পার্টি হতো না। বাইরের লোকজনও আসতো না। ছেলে-মেয়ে থাকাকালীন বোরকা পড়ে চলাফেরা করেন সুবর্ণা।

সূত্র- কালের কণ্ঠ

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর