,



উত্তম ব্যবহার ও আন্তরিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের মাধ্যমে ডাক্তারদেরকে জনগনের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে হবে -মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপি বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের জনগনকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষা বিস্তার ও মান উন্নয়নে শেখ হাসিনা প্রতিটি জেলায় একটি করে বিশ্ববিদ্যালয় ও একটি করে মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার ঘোষনা দিয়েছেন। ইতিমধ্যে তিনি নেত্রকোনায় শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় ও নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজ নামে একটি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছেন। এই কলেজের আজ দ্বিতীয় ব্যাচ (এমবিবিএস)-এর ওরিয়েন্টেশন ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তিনি নবীন ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, বর্তমান সরকার আধুনিক চিকিৎসা সেবা জনগনের দ্বোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার জন্য নিরলসভাবে কাজ করছে। তোমরা যাতে ভাল মানের ডাক্তার হতে পারো তার জন্য সব ধরণের কার্যকর উদ্যোগ নিয়েছে। ভাল ডাক্তার হওয়ার আগে ভাল মানুষ হতে হবে। তোমাদের মনে রাখতে হবে, জনগনের টাকায় তোমরা ডাক্তার হতে যাচ্ছো। তাই তোমাদেরকে জনগনের সেবায় আত্ম-নিয়োগ করতে হবে। উত্তম ব্যবহার ও আন্তরিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের মাধ্যমে জনগনের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। তাহলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব হবে। তিনি শুক্রবার সকাল ১০টায় নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল চত্ত্বরে অস্থায়ী ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস এবং নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজে’র ২য় ব্যাচ (এমবিবিএস)-এর ওরিয়েণ্টেশন অনুষ্ঠান ও পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির ভাষনে এসব কথা বলেন।

নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডাঃ রঞ্জন কুমার কর্মকারের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ জ্যোতির্ময় আইচ, জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম, পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী, নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ তাজুল ইসলাম খান, প্রেসক্লাব সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, স্বাচিপ নেত্রকোনা জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ পলাশ মজুমদার বাপী, বিএমএ নেত্রকোনা জেলা শাখার সম্পাদক ডাঃ আহসান কবীর রিয়াদ, স্বাচিপ নেত্রকোনার সম্পাদক ডাঃ এবি এম আব্দুল্লাহ আল মামুন, শিক্ষার্থী মাহাদি মাহফুজ, সিরাজুল ইসলাম, সাদিয়া বিশ্বাস প্রমূখ।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার পরপরই ২০১৮-২০১৯ ইং সেশনে প্রথম ব্যাচে ৫০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। ২০১৯-২০২০ ইং সেশনে ২য় ব্যাচেও ৫০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করা হয়েছে। নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের মৌজেবালী নামক স্থানে ৫০ একর জমি অধিগ্রহনের জন্য প্রাক্কলন তৈরী করে তা মন্ত্রনালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর