,



৪০ মিনিট পর ভোট দিলেন তাবিথের মা

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের শনিবার সকাল ৮টায় শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ। এবার পুরো ভোটগ্রহণ চলছে ইলেকট্রনিক ভোটিংশ মেশিনে।

এদিকে, ভোটগ্রহণের শুরুতেই ইভিএম-এ ত্রুটি দেখা দেয় গুলশানের একটি কেন্দ্রে, যেখানে ভোট দিতে এসেছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের মা নাসরিন আউয়াল। প্রায় ৪০ মিনিট দাঁড়িয়ে থাকার পর ভোট দিতে সক্ষম হন তিনি।

জানা গেছে, গুলশানের মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ৩ নম্বর মহিলা বুথে ভোট দিতে যান নাসরিন আউয়াল। কিন্তু ইভিএম মেশিনে সমস্যার কারণে তিনি ভোট দিতে পারছিলেন না।
প্রায় ৪০ মিনিট পর মেশিন পরিবর্তন করা হয়। এরপর ৮ টা ৪০ মিনিটের দিকে নাসরিন আউয়াল ভোট দেন।

এসময় বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন তাবিথ আউয়ালের বাবা আব্দুল আউয়াল মিন্টু।

ভোট দিয়ে বের হয়ে নাসরিন আউয়াল গণমাধ্যমকে বলেন, আমি সকাল ৮টায় ভোট দিতে এসেছি। মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের মহিলা কেন্দ্রের ৩ নম্বর বুথে ভোট দিতে যাই। কিন্তু তিনবার চেষ্টা করেও পোলিং কর্মকর্তারা আমার ভোট নিতে পারেননি। প্রায় ৪০ মিনিট অপেক্ষা করার পর মেশিন পরিবর্তন করা হয়। চতুর্থ বারের চেষ্টায় আমি ভোট দিতে পেরেছি।

‘আমি বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের মা। আমার ভোট দিতেই এই অবস্থা। তাহলে অন্য ভোটারদের কি অবস্থা হবে জানি না।’

এ বিষয়ে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমার মা ভোট দিতে গেলে মেশিন ব্রেকডাউন হয়ে যায়।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর