,



ঝালকাঠির পিপি হত্যা মামলায় ৫ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ঝালকাঠির পিপি (সরকারি কৌঁসুলি) এডভোকেট হায়দার হোসেইন হত্যা মামলায় বিচারিক আদালতের প্রদত্ত রায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির পাঁচ সদস্যের মৃত্যুদন্ড বহাল রেখেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি সৌমেন্দ্র সরকার ও বিচারপতি শাহেদ নূর উদ্দিনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আসামিদের আপিল খারিজ করে এ মামলার ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদন) গ্রহণ করে রবিবার রায় দেয়।

শুনানিতে আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ, সহকারী এটর্নি জেনারেল নির্মল কুমার দাস ও সৈয়দা শবনম মুশতারী। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী এসএম শাহজাহান, এসএম মাহবুবুল ইসলাম, মহিনুর রহমান। পলাতকদের পক্ষে রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী ছিলেন আসাদুর রহমান।

আদালত গত সোমবার ডেথ রেফারেন্স, আপিল ও জেল আপিলের শুনানি শেষে রবিবার রায়ের দিন ধার্য করেছিল। সে অনুযায়ী ডেথ রেফারেন্স গ্রহণ ও আসামিদের আপিল ও জেল আপিল খারিজ করে দিয়ে রায়ের কার্যকরী অংশ (অপারেটিভ পার্ট) ঘোষণা করে আদালত।

ডেপুটি এটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, দুই আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, সাক্ষ্য পর্যালোচনা ও মামলার দালিলিক প্রমাণাদি বিবেচনায় নিয়ে হাইকোর্ট বিচারিক আদালতের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডবহাল রেখেছে।

২০১৫ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল হালিম পাঁচ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয়।

মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্তরা হলেন- রাজশাহীর আমিনুল ইসলাম ওরফে আমির হোসেন, বরগুনার আবু শাহাদাত তানভীর, খুলনার টুটপাড়ার মুরাদ হোসেন, বরগুনার তালতলার বেল্লাল হোসেন ও ঢাকার উত্তরখান এলাকার সগির হোসেন। তাদের মধ্যে আসামি বেল্লাল হোসেন ও সগির হোসেন পলাতক রয়েছেন।

বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আসামিরা হাইকোর্টে আপিল করে। অন্যদিকে, মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য (ডেথ রেফারেন্স) মামলার যাবতীয় নথি হাইকোর্টে পাঠানো হয়। বাসস

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর