,



হিন্দু হয়েও মুসলিম ধর্ম পালন করেন অভিনেত্রী দুলারী

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় মুখ শাহনাজ পারভিন দুলারী। দুলারী নামেই অধিক পরিচিত। রুপালি পর্দায় খল চরিত্রে অভিনয় করে মুগ্ধ করেছেন দর্শকদের। আশির দশক থেকে এখন পর্যন্ত খল চরিত্রে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করে যাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। এরই মধ্যে আট শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। সর্বশেষ ‘বীর’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন। সম্প্রতি তিনি একটি অনুষ্ঠানে এসে জানালেন হিন্দু হয়েও মুসলিম ধর্ম পালন করছেন তিনি।ৎ

দুলারী বলেন, ‘অভিনয় জগতে আসার পর বাড়ি গেলাম। কিন্তু আমার মা আমাকে বাড়িতে জায়গা দিলো না। আমি কিন্তু মূলত হিন্দু। আমার নাম আল্পনা দুলারী দে। কিন্তু আমি মুসলিম ধর্ম পালন করি। এখন আমার নাম শাহনাজ পারভিন দুলারী। আমি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি, কোরবানী দেই, আমি রোজার মাসে রোজা রাখি। আমি বাড়ি যাওয়ার পর আমাকে বাড়িতে উঠতে দেয়া হবে না। আমার কাকা, জেঠা যারা ছিলেন তারা বলতেছিল- আমাকে বাড়ি উঠতে দিলে আমার বাবা-মাকে সমাজে একা রাখবে। তখন আমি ভাবলাম-আমার জন্য সবার এই শাস্তি পেতে হবে কেন। এর পর বাড়ি থেকে চলে আসি। সিনেমায় কাজ শুরু করে দেই।

কীভাবে অভিনয়ে আসা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই অভিনয় আমার ভালো লাগতো। রাজ্জাক ভাই, শাবানা আপা, কবরী আপার অভিনয় দেখতাম। তখন থেকেই অভিনয়ের প্রতি আমার ঝোঁক। পঞ্চম শ্রেণিতে ওঠার পর স্কুল পালিয়ে ‘মালেকা বানু’ সিনেমার শুটিং দেখেতে গিয়েছিলাম। বাড়ি ফেরার পর মায়ের মার খেলাম। এর পরই জিদ করলাম আমি অভিনয় করবো। কিছুদিন পর বাড়ি থেকে পালিয়ে এফডিসিতে চলে আসলাম। পরিচালক সিরাজুল ইসলামকে অনুরোধ করি; আমি তো আর বাড়ি ফিরে যেতো পাবো না সুতরাং আপনি আমাকে কাজ দেন। তখন তিনিই আমাকে প্রথম কাজ দেন। প্রথম ১৩০টি সিনেমায় কমেডি অভিনয় করেছি। এরপর খল চরিত্রে অভিনয় শুরু করি।’

দুলারী এখন পর্যন্ত বিয়ে করেননি। কেন বিয়ে করেননি জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিয়ে করার মতো কাউকে পাইনি। তাই আমি বিয়ে করিনি। আমি যে রকম পুরুষ জীবনে চাই, সে রকম পাইনি। আমার মনের মতো হতে হবে, আমাকে অভিনয় করতে দিতে হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর