,



বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে খোয়াই নদীর পানি

শহরে খোয়াই নদীর ভাঙন আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে হবিগঞ্জবাসী। উজান থেকে নেমে আসা ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে নদীর পানি গতকাল দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিপদসীমার ২৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি বাড়ার ফলে শহর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফাটল দেখা দিয়েছে। শহরের কামড়াপুর ব্রিজ পয়েন্টে, মাছুলিয়া পয়েন্টে, তেতৈয়া ব্রিজ পয়েন্টে, গোবিন্দপুর পয়েন্টে ও রামপুর পয়েন্ট ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এদিকে গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে হবিগঞ্জ শহরে গুজব ওঠে কামড়াপুর ব্রিজ সংলগ্ন বাঁধটি ভেঙে গেছে। ফলে শহরজুড়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে কামড়াপুর ব্রিজসংলগ্ন বাঁধ এলাকায় হাজার হাজার উত্সুখ লোক ভিড় জমায়। কেউকে আবার ভাঙনে পানি আতঙ্কে বাসাবাড়ি থেকে মালামাল সরিয়ে নিতেও দেখা দিয়েছে। সরেজমিন দেখা গেছে, বাঁধটিতে ফাটল দেখা দিয়েছে। ফলে প্রশাসনের সহযোগিতায় স্থানীয় লোকজন বালুর বস্তা ফেলে পানি প্রবেশ বন্ধ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ড ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সন্ধ্যায় মাইকিং করে খোয়াই নদীর পারের বসবাসকারী ও শহরবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। অভ্যন্তরীণ নদীর পানি বৃদ্ধির প্রবাহ কম হলেও গত সোমবার সকালে ভারতের খোয়াই মহকুমায় অবস্থিত খোয়াই ব্যারাজের বাঁধ খুলে দেওয়ায় দ্রুতগতিতে পানি চলে আসছে বাংলাদেশের দিকে। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী মো. তাওহিদুল ইসলাম জানান, হবিগঞ্জ ও ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে ও ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে খোয়াই নদীর পানি দ্রুতগতিতে বেড়েই চলছে। অন্যদিকে কামড়াপুর ব্রিজ পয়েন্টে বাঁধ মেরামতের সময় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা বালু, মাটি ও বস্তার ব্যবস্থা করে দেন। তবে স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, পর্যাপ্ত পরিমাণে বালু ও বস্তা না থাকায় মেরামতের কাজ করতে সময় লাগছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর