,



কিশোরগঞ্জে কিশোরী গণধর্ষণের মূল হোতাকে মদন থেকে আটক করেছে র‌্যাব

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জে কিশোরী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি মো. জাকির (৩২) কে নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার তিয়শ্রী এলাকা থেকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প।

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) রাতে র‌্যাবের সাঁড়াশি অভিযানে সে আটক হয়।

গণধর্ষণের হোতা মো. জাকির কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মাইজখাপন ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামের করিম মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত ১ মার্চ রাত ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মাইজখাপন ইউনিয়নের কাচারীপাড়া এলাকার এক কিশোরী (১৪) প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য ঘর থেকে বের হয়ে ঘরের পিছনে বাথরুমে যাওয়ার সময় তিন জন যুবক তাকে উঠিয়ে নিয়ে দুলাল মিয়ার জঙ্গলে গণধর্ষণ করে।

ঘটনার পরপরই র‌্যাবের একটি চৌকস আভিযানিক দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং তথ্য উপাত্ত এর মাধ্যমে ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত পূর্বক আটকের জোর প্রচেষ্টা চালায়।

এরই ধারবাহিকতায় এ ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী ধর্ষণের সাথে সরাসরি জড়িত এজাহার নামীয় ১নং আসামি মো. জাকিরকে আটক করতে বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) রাতে অভিযান চালায় র‌্যাব।

রাত সাড়ে ৯টায় নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার তিয়শ্রী এলাকায় চালানো অভিযানে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয় জাকির।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে সে গণধর্ষণের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ওই রাতে সে সুকৌশলে ভিকটিমকে বাড়ির পিছন থেকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে প্রথমে নিজে ধর্ষন করে এবং পরে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদেরকে দিয়ে গণধর্ষণ করায়।

এ ঘটনা সংক্রান্তে গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর