,



দুই হাত বাড়িয়ে মেসিকে স্বাগত জানাবে এমএলএস ক্লাব

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ কয়েক মাস আগে লিওনেল মেসি আমেরিকায় ফুটবল খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। থিয়েরি অঁরি, দাভিদ ভিয়া ও আন্দ্রে পিরলোদের পথ অনুসরণ করে তাকেও মেজর সকার লিগে (এমএলএস) দেখা যাবে কি না অনিশ্চিত। কিন্তু দুই হাত বাড়িয়ে তাকে স্বাগত জানাবে ইন্টার মিয়ামি। বার্সেলোনা সুপারস্টারকে ক্লাবটিতে সতীর্থ হিসেবে পাওয়ার আশা গনসালো হিগুয়েইনের।

আর তিন মাস পর বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির চুক্তি শেষ হয়ে যাবে। ন্যু ক্যাম্পে তার ভবিষ্যৎ নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা। শেষ পর্যন্ত ১৬ বছরের সম্পর্ক তিনি শেষ করে দেন নাকি তা আরও বাড়িয়ে নেবেন, তা ধোঁয়াশায় রয়েছে। ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে পাওয়ার দৌড়ে নেমেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব ম্যানসিটি ও ফরাসি চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সেন্ত জার্মেই। আমেরিকায় বসবাসের ইচ্ছাও জানিয়েছিলেন ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। এমনটা শুনে যারপরনাই রোমাঞ্চিত গত বছরের সেপ্টেম্বরে জুভেন্টাস থেকে ইন্টার মিয়ামিতে যোগ দেওয়া হিগুয়েইন।

অবশ্য হিগুয়েইন নিশ্চিত নন, ইউরোপের শীর্ষ পর্যায়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা থামিয়ে দেবেন মেসি। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সতীর্থকে নিয়ে সাবেক নাপোলি স্ট্রাইকার বলেছেন, ‘(আন্দ্রে) পিরলো এখানে (এমএলএস) এসেছিলেন, যখন তিনি ছিলেন একজন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। (থিয়েরি) অঁরি, (দাভিদ) ভিয়া ও (ব্লেইস) মাতুইদিও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। লিওনেল এখানে কেন আসবে না তার কোনও কারণ আমি দেখি না। যদি এটা তাকে সুখী করে, তাহলে আমরা তাকে দুই হাত বাড়িয়ে স্বাগত জানাবো।’

হিগুয়েইন মনে করেন, ভবিষ্যৎ নিয়ে শুধু নিজের মনের কথা শোনা উচিত মেসির। তিনি বলেছেন, ‘কোনও একটা সময় সে সিদ্ধান্ত নেবে কোথায় খেলতে চায়। এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত ও খেলোয়াড়ি পর্যায় থেকে সেরা সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কিন্তু আমার মতে চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে যাওয়ার মতো শক্তি সামর্থ্য এখনও তার আছে।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর