,



মাংস কম পড়ায় ভাংচুর, বিয়ের আসরেই তালাক

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ বিয়ে বাড়িতে খাবারে মাংস কম প’ড়েছে। তাতেই ক্ষোভে ফেটে পড়লেন বরপক্ষ। এ নিয়ে কথা কাটিকাটি এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে গড়ালে প্যান্ডেল পর্যন্ত ভাঙচুর করা হয়। এরপর সব মিটমাটের দিকে এগোলেও বেঁকে বসেন কনে। বিয়ে হতে না হতেই বরপক্ষের চরম অভদ্রতায় বিয়ের আসরেই তৈরি হল ‘তালাকপত্র’। বিয়ের পর নতুন সংসার করার আগেই বিয়ে ভাঙেন তিনি।

শুনতে অ’বাক লাগলেও, স’ম্প্রতি এমনই এক ঘ’টনা ঘ’টেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের গলসির বাহিরঘন্না গ্রামে। তার কথায়, যারা সামান্য মাংসের জন্য বিয়েবাড়িতে এমন হুলুস্থুল কাণ্ড ঘটাতে পারে, আর যাই হোক তাদের বাড়ির বউ হতে পারব না।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, ঘ’টনার দিন গলসির বামুনাড়া গ্রামের বাসিন্দা বর প্রায় ৭০ জন বরযাত্রী নিয়ে দুপুরে মেয়ের বাড়িতে বিয়ে ক’রতে আসেন। কনের বাবা পেশায় দিনমজুর হলেও,মেয়ের বিয়ের জন্য যথাসাধ্য আয়োজন করেছিলেন। সব কিছুই ঠিকঠাক হচ্ছিল। তবে বরপক্ষ খেতে বসতে না বসতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিয়ের আসর।

এদিকে, কনের এমন সিদ্ধা’ন্তে প্রথমে কিছুটা চিন্তায় পড়লেও, পরবর্তীতে তাতেই সম্মত হন পাত্রীর বাবাও। তার কথায়, ‘প্রথমে কিছুটা দ্বিধায় থাকলেও পরে মেয়ের সিদ্ধা’ন্তকেই সম্মান জা’নাই। ওই বাড়িতে গেলে ও

কিছুতেই ভালো থাকতে পারত না। ’শুধু পাত্রীর বাবাই নয়, আশপাশের অনেকেই তার এই সিদ্ধা’ন্তকে সমর্থন জা’নিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর