,



ভালো মানের বীজ সরবরাহ না করলে জেল-জরিমানা

ভালো মানের বীজ সরবরাহ না করলে জেল ও জরিমানার বিধান রেখে বীজ আইন-২০১৭ এর খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে মন্ত্রিপরিষদ সভায় এ আইনে অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

শফিউল আলম বলেন, ‘নতুন আইনে বলা হয়েছ, দেশে ২৫ সদস্যের একটি জাতীয় বীজ বোর্ড গঠন করা হবে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব বোর্ডের চেয়ারম্যান হবেন। বীজ উইংয়ের মহাপরিচালক বোর্ডের সদস্য সচিবের দায়িত্ব পালন করবেন। প্রতি ছয় মাসে কমপক্ষে একটি মিটিং করতে হবে। বোর্ডে দুইজন কৃষক থাকবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন আইন অনুযায়ী এখন থেকে বীজ ডিলারকে বোর্ডের অধীনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং লাইসেন্স নিতে হবে। বীজের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় এ বোর্ড সরকারকে পরামর্শ দেবে। বীজের মান নিয়ন্ত্রণ করাই এ বোর্ডের মূল লক্ষ্য।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘কেউ যদি বীজ পরিদর্শককে তার কাজে বাধা দেন, প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেন তবে তা অপরাধ বলে গণ্য হবে। যার শাস্তি হবে ৯০ দিনের জেল ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা। এছাড়া বীজের গুণগত মানের ব্যর্তয় ঘটলে অনুরূপ শাস্তির বিধান রাখা হয়েছ নতুন আইনে। আগে প্রথমবার কেউ অপরাধ করলে কোনও জেল হতো না, শুধু ৫শ’ টাকা জরিমানা করা হতো। দ্বিতীয়বার একই ধরনের অপরাধ করলে ৫শ’ টাকা জরিমানাসহ ৩০ দিনের জেল দেওয়া হতো।’

তিনি আরও বলেন, ‘মামলা করতে একজন বীজ পরিদর্শকের লিখিত আবেদন করতে হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতে ওই মামলার বিচার করা সম্ভব।’

শফিউল আলম বলেন, ‘বিদেশি বীজের প্রয়োজনীয় মানদণ্ড নিশ্চিত করা এ বোর্ডের কাজ। বোর্ডের অনুমোদন ছাড়া বীজ আমদানি বা রফতানি করা যাবে না। বীজ রফতানির ক্ষেত্রে বোর্ডের সুপারিশ লাগবে।’

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর