,



অচিরেই ফরহাদ মজহারের নিখোঁজের রহস্য উদঘাটন হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাঙালী কণ্ঠ ডেস্কঃ  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আমাদের পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ দেওয়া উচিত। কারণ তারা কবি ও সাহিত্যিক ফরহাদ মজহারকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

তা ডিবি তদন্ত করছে। আমরা আশা করি অচিরেই এর রহস্য উদঘাটন হবে। আজ বুধবার দুপুরে টঙ্গী থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, পুলিশের গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষণিক মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান পর্যবেক্ষণ করে উদ্ধার শেষে তাকে তার পরিবারের কাছে তুলে দিয়েছে।

এ ছাড়াও গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনার বিষয়ে সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, শিল্প-কারখানায় বয়লার স্থাপনের একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। এগুলো তদারকি করার জন্য বয়লার পরিদর্শকও রয়েছেন। বয়লার স্থাপনের পর সেটির সক্ষমতা রয়েছে কিনা কিছুদিন পরপর তা যাচাই করতে হয়।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে বলা যাবে এতে কারও কোনো গাফিলতি ছিল কিনা। তিনি আরও বলেন, যদি মালিকপক্ষের কোনো অবহেলা থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. জাহিদ আহসান রাসেল, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মো. সফিকুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার মো. হারুন-অর-রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. গোলাম সবুর, সাখাওয়াত হোসেন, রাসেল শেখ, টঙ্গী থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার, জয়দেবপুর থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলামসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আমাদের পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ দেওয়া উচিত। কারণ তারা কবি ও সাহিত্যিক ফরহাদ মজহারকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। তা ডিবি তদন্ত করছে। আমরা আশা করি অচিরেই এর রহস্য উদঘাটন হবে। আজ বুধবার দুপুরে টঙ্গী থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, পুলিশের গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষণিক মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান পর্যবেক্ষণ করে উদ্ধার শেষে তাকে তার পরিবারের কাছে তুলে দিয়েছে। এ ছাড়াও গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনার বিষয়ে সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, শিল্প-কারখানায় বয়লার স্থাপনের একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। এগুলো তদারকি করার জন্য বয়লার পরিদর্শকও রয়েছেন। বয়লার স্থাপনের পর সেটির সক্ষমতা রয়েছে কিনা কিছুদিন পরপর তা যাচাই করতে হয়। আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে বলা যাবে এতে কারও কোনো গাফিলতি ছিল কিনা। তিনি আরও বলেন, যদি মালিকপক্ষের কোনো অবহেলা থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. জাহিদ আহসান রাসেল, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মো. সফিকুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার মো. হারুন-অর-রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. গোলাম সবুর, সাখাওয়াত হোসেন, রাসেল শেখ, টঙ্গী থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার, জয়দেবপুর থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলামসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

Print Friendly, PDF & Email

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর